মাস্কাট-ঢাকা রুটে ফ্লাইটের সবশেষ খবর

0

প্রবেশ নিষেধাজ্ঞার তুলে নেওয়ায় এক মাসের বেশি সময় পর ওমান থেকে দেশে ফিরতে শুরু করেছেন প্রবাসী বাংলাদেশিরা। প্রথম দিনে শুক্রবার (৪ জুন) সালাম এয়ারের ফ্লাইটে মাস্কাট থেকে মাত্র ২ জন যাত্রী ঢাকায় ফিরেন। শনিবার থেকে চালু হওয়া বেসরকাকারি বিমানসংস্থা ইউএস বাংলার প্র্রথম ফ্লাইটে ১৪০ যাত্রী ওমান থেকে দেশে ফিরেছেন।

সালামএয়ারে ঢাকা অফিস সূত্রে জানা গেছে, আগামী মঙ্গলবার (৮ জুন) থেকে মাস্কাট-ঢাকা রুটে নিয়মিতভাবে সপ্তাহে ৫টি ফ্লাইট পরিচালনা করা হবে।

অন্যদিকে, ইউএস-বাংলা এয়ারলাইন্স প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে চারদিন মঙ্গল, বুধ, শুক্র ও রবিবার স্থানীয় সময় রাত ২টায় মাস্কাট থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে উড্ডয়ন করবে এবং ঢাকায় স্থানীয় সময় সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে অবতরন করবে। ১৬৪ আসনের বোয়িং ৭৩৭-৮০০ এয়ারক্রাফট দিয়ে মাস্কাট থেকে ঢাকা রুটে ফ্লাইটটি পরিচালনা করা হবে।

অন্যদিকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও ওমানএয়ার এখনও পর্যন্ত মাস্কাট-ঢাকা রুটে নতুন ফ্লাইট সিডিউল ঘোষণা করেনি। ওমানএয়ার এতদিন সপ্তাহে দুটি ফ্লাইটে সৌদি আরব ও আমিরাত থেকে মাস্কাট ট্রানজিট করে ঢাকায় যাত্রী নিয়ে এসেছে। আমিরাত বন্ধ থাকায় এখন শুধু সৌদি থেকে যাত্রী আনছে। বিমান সংস্থাটির সূত্রে জানা গেছে, নিষেধাজ্ঞা উঠে যাওয়ায় তারা শীঘ্রই মাস্কাট থেকে ঢাকা রুটে যাত্রী পরিবহন শুরু করবে ।

প্রবাসী বাংলাদেশিরা যত দ্রুত সম্ভব বাংলাদেশ বিমানের ফ্লাইট চালু দাবি জানিয়েছেন।

ওমান থেকে ঢাকায় আসা প্রবাসী বাংলাদেশিসহ সকল যাত্রীদের নিজ খরচে বাধ্যবাধকমূলক তিনদিন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন থাকতে হবে। তিনদিন পর করোনা পরীক্ষায় ফলাফলে নেগেটিভ হলে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন থেকে ছাড় পাবেন এবং বাকি ১১ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

করোনা সংক্রমণ রোধে গত ১ মে ওমানসহ ১২টি দেশ থেকে বাংলাদেশে যাত্রীদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছিল বাংলাদেশের বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক)। এ দিকে সুপ্রিম কমিটির সবশেষ নির্দেশনা অনুযায়ী বাংলাদেশ থেকে ওমান প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা অনিদিষ্টকালের জন্য জারি করা আছে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন