পেঁয়াজ হ্যান্ডলিং চার্জ মওকুফ করেছে বিমান বাংলাদেশ

0

আকাশপথে পেঁয়াজ আমদানি করলে ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে প্রযোজ্য গুডস হ্যান্ডলিং চার্জ নেবে না বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স। আকাশপথে যে কোনো পচনশীল দ্রব্য পরিবহনের ক্ষেত্রে প্রতি কেজিতে ১৮ টাকা চার্জ দিতে হয়।

বুধবার (২০ নভেম্বর) জনস্বার্থে নেওয়া এই উদ্যোগের কথা জানিয়েছে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় ।

মন্ত্রণালয় থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, পেঁয়াজের বাজার স্থিতিশীল রাখতে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয় নির্ধারিত চার্জ সাময়িকভাবে মওকুফ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এ প্রসঙ্গে বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. মহিবুল হক বলেছেন,পেঁয়াজের দাম স্থিতিশীল রাখতে জনগণের স্বার্থে যত দিন এভাবে আকাশপথে পেঁয়াজ আমদানি করা হবে তত দিন এই চার্জ মওকুফের ব্যবস্থা কার্যকর থাকবে। আকাশপথে পেঁয়াজ আমদানির সঙ্গে সম্পৃক্ত সব ব্যবসায়ীকে এ ব্যাপারে সর্বতোভাবে সহযোগিতা করা হবে।

পেঁয়াজের সরবরাহ ও মূল্য স্বাভাবিক রাখতে কার্গো উড়োজাহাজে করে পেঁয়াজ আমদানি করার উদ্যোগ নেওয়া হয়। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশের (টিসিবি) মাধ্যমে তুরস্ক থেকে, এস আলম গ্রুপ মিসর থেকে এবং আরও কয়েকটি প্রতিষ্ঠান আফগানিস্তান, সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে জরুরি ভিত্তিতে কার্গো উড়োজাহাজের মাধ্যমে পেঁয়াজ আমদানি করছে।

আকাশপথে পেঁয়াজের প্রথম চালান আজ বুধবার রাতে মিসর থেকে আসবে। ঢাকার হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সৌদিয়া এয়ারলাইনসের যাত্রীবাহী উড়োজাহাজে প্রথম এই চালানটি এসে পৌঁছাবে। পরদিন বিসমিল্লাহ এয়ারলাইনসের পণ্যবাহী উড়োজাহাজে দ্বিতীয় চালান আসবে। আগামী শুক্রবার তৃতীয় চালান আসবে সৌদিয়া এয়ারলাইনসের যাত্রীবাহী উড়োজাহাজে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Loading...