ভবিষ্যতের বাস নামল বর্তমানের চীনে

0

বাসটি এতই উঁচু আর বিশাল যে, তার নিচ দিয়ে অনায়াসে যাতায়াত করতে পারে ডজন ডজন প্রাইভেট কার। মে’তে যখন এ বাসের একটি ক্ষুদ্র মডেলের ভিডিও প্রকাশ করা হয়, তখন থেকে শুধু চীনে নয়, বিশ্বজুড়েই বিস্ময় তৈরি হয়। তিন মাসের মধ্যে সেই এলিভেটেড বাসের পরীক্ষা সম্পন্ন করেছে চীন।

পরীক্ষামূলকভাবে চালু হওয়া ওই বাসের নাম ট্রানজিট এলিভেটেড বাস (টিইবি-১)। হেবেই প্রদেশের কিয়ংডাও শহরে ৩০০ মিটার লম্বা একটি ট্র্যাকে টিইবির পরীক্ষা চালানো হয়। রাস্তার দুই প্রান্তে বসানো ট্রাম লাইনের মতো ট্র্যাক দিয়ে চলবে ঢাউস এ বাসটি। কিন্তু রাস্তা জুড়ে চললেও অন্যান্য যানবাহন চলাচলের জন্য বাধা তৈরি করবে না। কারণ বাসের তলা থেকে রাস্তার ব্যবধান থাকবে দুই মিটার। ফলে তল দিয়ে বিনা বাধায় চলবে অন্যান্য অনেক রকম গাড়ি।

ভবিষ্যতের বাস
ভবিষ্যতের বাস

বিশালাকৃতি এ বাসটি ২৫ ফুট চওড়া। লম্বায় প্রায় ৭২ ফুট। এতে নিজস্ব ট্রাফিক লাইট ও দুর্ঘটনা এড়াতে বিভিন্ন সংবেদনশীল যন্ত্রপাতি রয়েছে। তবে প্রথম পর্যায়ে বাসটির গতি প্রতি ঘণ্টায় ৩৭ মাইল রাখা হয়েছে। এ প্রকল্পের প্রধান প্রকৌশলী সং ইউঝাও বার্তা সংস্থা সিনহুয়াকে বলেছেন, সবচেয়ে বড় সুবিধা হচ্ছে, এ বাস রাস্তা দখল করবে না। পাতাল রেলের মতোই রাস্তার ওপর চাপ কমাবে এ পরিবহন ব্যবস্থা, কিন্তু পাতাল রেলের নির্মাণ ব্যয়ের পাঁচ ভাগের এক ভাগ খরচেই এ ব্যবস্থা চালু করা যাবে। চারটি বাস একসঙ্গে জুড়ে দিয়ে চালানো সম্ভব হবে, ফলে একটি টিইবি বাস রাস্তায় নামিয়ে ৪০টি সাধারণ বাসের যাত্রী পরিবহন করা সম্ভব হবে। বলা হচ্ছে, ট্রাফিক জ্যাম ৩৫ শতাংশ কমাতে সক্ষম হবে এ বাস। এ কারণে শুধু চীনই নয়, এ বাসের ব্যাপারে আগ্রহ প্রকাশ করেছে ব্রাজিল, ফ্রান্স, ভারত ও ইন্দোনেশিয়া।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।