থাই আকাশে ডানা মেলছে ওমানের সালামএয়ার

মাস্কাট-ফুকেট-মাস্কাট রুটে সরাসরি ফ্লাইট

0

দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার আকাশে ডানা আরো প্রসারিত করছে ওমানের দ্রুত সাড়া ফেলা ও জনপ্রিয় হয়ে ওঠা বাজেট বিমানসংস্থা সালামএয়ার। সুলতানতের এই বিমানসংস্থাটি এবার বিশ্বের ভ্রমণপিপাসুদের জনপ্রিয় ঠিকানা ফুকেটে সরাসরি ফ্লাইট পরিচালনার ঘোষণা দিয়েছে। ফুকেটে এই সেবা চালুর মধ্য দিয়ে সালামএয়ার পৃথিবীর অন্যতম আকর্ষণীয় পর্যটন গন্তব্য থাইল্যান্ডের আকাশপথে ঠাঁই করে নিচ্ছে।

ফুকেটকে বলা হয় থাইল্যান্ডের জাদুগরী দ্বীপ, যা ঝলমলে সাদা বালির সমুদ্র সৈকত, নীল জলরাশি এবং সবুজের সমারোহে উদ্ভাসিত। দেশটির প্রধান এই পর্যটন কেন্দ্রে, ভ্রমণের সব স্বাদই পাওয়া যায় সুলভে। আছে নানা মজা লুফে নেওয়ার সব ধরনের আয়োজন, আধুনিক সুবিধা, চমৎকার আতিথেয়তা, জিভে জল আলা খাবার এবং উন্নত মানের আবাসন। এই দ্বীপের সমুদ্র উপকূলঘেষা বিভিন্ন রিসর্ট, স্পা এবং রেস্তোঁরা ভ্রমণপিপাসুদের কাছে অন্যতম আকর্ষণ।

বিমানসংস্থাটি জানায়, আগামী ২৪ ডিসেম্বের থেকে মাস্কাট-ফুকেট-মাস্কাট রুটে সরাসরি ফ্লাইট চালু হচ্ছে। সপ্তাহের মঙ্গলবার, বৃহস্পতিবার ও শনিবার তিনদিন এই ফ্লাইট চলাচল করবে।

স্থানীয় সময় ভোর ৪ টা ৪০ মিনিটে মাসকট থেকে ছেড়ে ফ্লাইটটি ফুকেটে পৌছুবে স্থানীয় সময় দুপুর ১ টায়। সেখান থেকে আবার ফুকেটের স্থানীয় সময় দুপুর ১.৪৫ মিনিটে ছেড়ে মাসকাট পৌছাবে স্থানীয় সময় বিকেল ৫.১৫ মিনিটে।

সালামএয়ারের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ক্যাপ্টেন মোহাম্মদ আহমেদ জানান, “থাইল্যান্ডে আমাদের নতুন গন্তব্য তৈরি হওয়ায় আমরা খুব আনন্দিত। এটি আমাদের জন্য খুলে দিয়েছে সম্ভাবনার নতুন দরজা,যার মাধ্যমে ওমান হয়ে উঠতে পারে দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার এই দেশটির ট্যুরিজম খাতের জন্য অনেক লাভজনক ক্ষেত্র।

সালামএয়ার
সালামএয়ার

তিনি আরো বলেন, এই নতুন আকাশপথ চালুর মধ্য দিয়ে আমরা আমাদের সেবা আরো প্রসারিত করার প্রমাণ দিয়েছি। বিশ্বের বিভিন্ন গন্তব্যে আমাদের ডানা আরো প্রসারিত করায় হল আমাদের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ লক্ষ্য। এই বছরের শুরু থেকে নানা নতুন গন্তব্যে আমাদের ফ্লাইট চালু হওয়ার মধ্য দিয়ে আমরা সেই লক্ষ্যের বাস্তবায়ন ঘটিয়েছি যা আমাদের জন্য গর্বের। আমাদের সেবার আরো ছড়িয়ে দেয়ার ধারা ২০২০ সালেও অব্যাহত থাকবে।

তিনি আরো বলেন, ওমানের সাথে থাইল্যান্ডের বাণিজ্য এবং ভ্রাতৃত্ববোধ দীর্ঘদিনের। ওমানের বড় একটি বাজার হিসেবে সালামএয়ারের এই নতুন সেবা থাইল্যাল্ডের বাণিজ্য এবং ট্যুরিজমে নতুন মাত্র যোগ করবে। এর মাধ্যমে দু দেশের পর্যটকদের মধ্যে যাওয়া আসা বাড়বে বলেও আশা প্রকাশ করেন তিনি।

সালামএয়ারের বহরে তিনটি এ ৩২০ এয়ারবাস এবং চারটি এ ৩২০ নিও এয়ারবাস আছে যেগুলি ওমানের প্রথম কোন সিঙ্গেল আইল (সরু বডি) উড়োজাহাজ হিসেবে মানসম্পন্ন রেটিং বজায় রাখার দক্ষতা দেখিয়েছে।

বর্তমানে সালামএয়ার আন্তর্জাতিক রুটে ঢাকা, চট্টগ্রাম, আবুধাবী, দুবাই, বাহরাইন, কুয়েত, দোহা, জেদ্দা, রিয়াদ, দাম্মাম, তেহরান, শিরাজ, ইস্তানবুল, আলেকজান্দ্রিয়া, খার্তুম, মুলতান, শিয়ালকোট, করাচি, কাঠমান্ডু এবং কলম্বো গনন্তব্য চলাচল করছে। অভ্যন্তরীণ রুটে মাস্কাট, সালালাহ এবং সুহাতে ফ্লাইট পরিচালনা করে।

এই বিমানসংস্থার অতিরিক্ত লাগেজ, আসন এবং খাবার নির্বাচনের সুবিধা যাত্রীদের বেশ প্রশংসা কুড়িয়েছে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Loading...