কাট-কপি-পেস্ট’র উদ্ভাবক ল্যারি টেসলার মারা গেছেন

0

‘কাট-কপি-পেস্ট’-শর্টকাটের উদ্ভাবক আমেরিকার বিখ্যাত কম্পিউটার বিজ্ঞানী ল্যারি টেসলার ৭৪ বছর বয়সে মারা গেছেন। তাঁর মৃত্যুতে শোকাহত কম্পিউটার জগতের বিশেষজ্ঞ ও গবেষকরা।

বুধবার সান ফ্রান্সিসকোতে সিলিকন ভ্যালিতে মারা যান প্রাথমিক কম্পিউটিংয়ের প্রবর্তক এই প্রখ্যাত বিজ্ঞানী ।

নিউ ইয়র্কে বেড়ে ওঠা এই বিজ্ঞানী কাট-কপি ও পেস্টের উদ্ভাবক তো বটেই, তাঁর হাত দিয়ে বের হয়েছে ফাইন্ড (FIND), রিপ্লেস (Replace)-এর মতো অতি প্রয়োজনীয় কমান্ড।

ব্লু-চিপ সংস্থা অ্যাপল, অ্যামাজন, ইয়াহু ও জেরক্স সংস্থার সঙ্গে কাজ করেছেন তিনি। অ্যাপলের সঙ্গে তিনি প্রায় ১৭ বছর ধরে কাজ করেছেন এবং শীর্ষস্থানীয় বিজ্ঞানী হয়ে উঠেছিলেন।।

অ্যাপলের প্রয়াত কর্ণধার স্টিভ জোবসের খুব কাছের মানুষ ছিলেন তিনি। তিনি ওই সংস্থার চিফ সায়েনটিস্ট ছিলেন।

অ্যাপল নিয়োগের আগে ফটোকপি সংস্থা জেরক্সের পালো আল্টো রিসার্চ সেন্টারে (পার্ক) দিয়ে সিলিকন ভ্যালিতে ক্যারিয়ার শুরু করেছিলেন টেসলার ।

জেরক্স টুইটারে লিখেছেন: “কাট/কপি এবং পেস্টের আবিষ্কার, সন্ধান এবং প্রতিস্থাপন এবং আরও অনেক কিছু ছিলেন সাবেক জেরক্স গবেষক ল্যারি টেসলার। আপনার কার্যদিবসে এই বিপ্লবী ধারণাগুলির জন্য ন্যবাদ । ”

ল্যারি টেসলারের জন্ম ১৯৪৫ সালে নিউ ইয়র্কের ব্রোনক্সে। স্ট্যান্ডফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কম্পিউটার সায়েন্স নিয়ে পড়াশোনা শুরু করেন ল্যারি। স্নাতক শেষ হওয়ার পরে, কম্পিউটারগুলিকে আরও ব্যবহারকারী বান্ধব করে তুলতে তিনি ইউজার ইন্টারফেস (ইউআই) ডিজাইনের দিকে মনোনিবেশ করেছিলেন।

সাধারণত হিউম্যান কম্পিউটার ইন্টারঅ্যাকশনের প্রতিই ঝোঁক ছিল তাঁর। সেই ঝোঁকই তাঁকে বহুদূর পর্যন্ত নিয়ে যায়। আবিষ্কার করে ফেলেন মানুষের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় ও বেশি ব্যবহৃত কমান্ড।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।