এয়ার ইন্ডিয়ার পাঁচ পাইলট করোনা পজিটিভ

0

ভারতের রাষ্ট্রীয় বিমানসংস্থা এয়ার ইন্ডিয়ার পাঁচ পাইলট শরীরে করোনার সংক্রমণ ধরা পড়েছে। পাশাপাশি এক ইঞ্জিনিয়ার ও একজন টেকনিশিয়ানও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে সংস্থাটির দায়িত্বশীল সূত্র ভারতীয় মিডিয়াকে নিশ্চিত করেছে।

ইন্ডিয়া টুডের প্রতিবেদনে বলা হয়, শনিবার ৭৭ জন বিমান চালকের শরীরে করোনার পরীক্ষা করানো হয়। সংক্রমিত বিমান চালকদের কারও শরীরেই কোনও লক্ষণ নেই। তাঁদের সকলকে নিজেদের বাড়িতে কোয়ারান্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে।

এই পাঁচজন বিমান চালকই বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনার বিমান চালাতেন। ২০ এপ্রিলের পরে তাঁদের মধ্যে কেউই বিমান চালাননি।

অন্যদিকে এয়ারলাইন্সের অন্য সূত্র ইন্ডিয়া টুডে কে জানিয়েছে, মুম্বাইভিত্তিক এই পাইলটরা চীনে কার্গো ফ্লাইট পরিচালনা করেছিল।

এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানে বিদেশে আটকে পড়া ভারতীয়দের ফিরিয়ে আনা হচ্ছে। ইতালি ও ইরানের মতো দেশ, যেখানে সংক্রমণের হার অত্যন্ত বেশি, সেখান থেকেও আনা হচ্ছে আটকে পড়া ভারতীয়দের।

উপসাগরীয় যুদ্ধের পর এত জনকে উদ্ধার করার ঘটনা এই প্রথম। এই কাজে নিযুক্ত প্রথম বিমানটি ৩২৬ জন ভারতীয়কে নিয়ে লন্ডন থেকে দেশ ফিরবে রবিবার।

সব মিলিয়ে ৬৪টি উড়ানে বিদেশ আটকে থাকা ১৫,০০০ ভারতীয়কে দেশে ফেরানো হবে।

এনডিটিভির খবর বলা হয়, করোনা সঙ্কটের সঙ্গে প্রথম সারিতে থেকে যুদ্ধ চালাচ্ছেন‌ যে কোভিড-১৯ যোদ্ধারা তাঁদের মধ্যে নবতম সংযোজন হিসেবে এই চালকদের শরীরে ধরা পড়ল সংক্রমণ। প্রায় ১০০ স্বাস্থ্যকর্মীর শরীরে ইতিমধ্যেই করোনা সংক্রমণ ধরা পড়েছে। তার মধ্যে দিল্লি ও মুম্বইয়ের সংখ্যাধিক্য রয়েছে।

পাশাপাশি ৫০০-র বেশি নিরাপত্তা কর্মীর শরীরেও কোভিড-১৯ সংক্রমণ ধরা পড়েছে। এর মধ্যে ২৫০ জন সিআরপিএফে রয়েছেন। এছাড়া ২০০ জন বিএসএফ কর্মী। এঁদের মধ্যে সংখ্যাগুরুই দিল্লির সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। দু’জন বিএসএফ জওয়ান ও দিল্লি পুলিশের এক কর্মী গত সপ্তাহে রাজধানীতে প্রয়াত হন করোনা-আক্রান্ত হয়ে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।