‘হয় টিকা নেবে, সুস্থ হবে অথবা মারা যাবে।’

0

জার্মানিতে কোভিড-১৯ মহামারির চতুর্থ ঢেউ দেখা দিয়েছে। এতে নতুন করে অসংখ্য মানুষ ভাইরাসটিতে আক্রান্ত হচ্ছেন। সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ৩০ হাজার ৬৪৩ জন রোগী শনাক্ত করা হয়েছে। যা এক সপ্তাহের মধ্যে ৭ হাজারেরও বেশি। বর্তমানে বিশ্বের মধ্যে সবচেয়ে বেশি করোনা রোগী শনাক্তের মধ্যে এই সংখ্যা অন্যতম শীর্ষে। খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, জার্মানির বিভিন্ন অঞ্চলে করোনা রোগীর সংখ্যা প্রতিনিয়ত বাড়ছে। এরই মধ্যে অনেক হাসপাতালে বেড সংকট দেখা দিয়েছে। দেশটিতে কোভিড-১৯ টিকা নেওয়ার হারও অনেক কম, ৬৮ শতাংশ। যা পশ্চিম ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে সবচেয়ে কম শতাংশের দিক দিয়ে অন্যতম। স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা বলছেন, করোনার এই ঢেউ সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি নিয়ে আসতে পারে।

এদিকে, সোমবার (২২ নভেম্বর) এক সংবাদ সম্মেলনে জার্মানির স্বাস্থ্যমন্ত্রী জেনস স্পান টিকা গ্রহণের গুরুত্বারোপ ও এ নিয়ে সতর্কতা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ‘এই শীতের শেষ নাগাদ জার্মানিতে সবাই হয় টিকা নেবে, সুস্থ হবে অথবা মারা যাবে।’

জেনস স্পান বলেন, তিনি শুরুতে করোনা টিকার বাধ্যবাধকতার বিরোধী ছিলেন। কিন্তু মানুষ যেন টিকা নেয়, সে জন্য এটি একটি নৈতিক বাধ্যবাধকতা ছিল। কারণ, এটি অন্যদের ওপর প্রভাব ফেলে।

‘স্বাধীনতা মানে দায়িত্ব নেওয়া। এবং টিকা নেওয়া সমাজের কর্তব্য’, যোগ করেন তিনি।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন