স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট চালুর ব্যাপারে ঐক্যমত

0

করোনা পরিস্থিতির উন্নতি সাপেক্ষে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ফ্লাইট চালুর ব্যাপারে ঐক্যমত পোষণ করেছেন এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের ও নিয়ন্ত্রক সংস্থা প্রধানরাসহ
সিভিল এভিয়েশন খাতের নেতারা।

বৃহস্পতিবার (২১ মে) আন্তর্জাতিক বেসামরিক বিমান চলাচল সংস্থার (আইকাও) অন্তর্ভুক্ত ‘কোলাবেরেটিভ অ্যারেজমেন্ট ফর প্রিভেনশন অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট অব পাবলিক হেলথ ইভেন্ট ইন সিভিল এভিয়েশন (সিএপিএসসিএ)’-এর থাইল্যান্ডের ব্যাংককস্থ এশিয়া প্রশান্ত মহাসাগরী আঞ্চলিক অফিসের আয়োজনে এক ভিডিও কনফারেন্সে অংশগ্রহণকারীরা এ ঐক্যমত পোষণ করেন।

২৩টি সদস্য রাষ্ট্র, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা, আইকাও এবং সিএপিএসসিএ’র সহযোগী সংস্থাগুলোর প্রতিনিধিদের অংশগ্রহনে বৈঠকে মহামারি করোনাভাইরাসের কবল হতে বিশ্ব এভিয়েশন শিল্প কীভাবে উত্তরণ ঘটাতে পারে এবং করোনা পরবর্তী অবস্থা কীভাবে মোকাবিলা করা যায়, তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়। শুরুতে করোনাভাইরাসে মৃত্যুবরণকারীদের স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

উদ্বোধনী সিএপিএসসিএ-এর বর্তমান চেয়ারপারসন ও বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান করোনা মহামারি পরিস্থিতি হতে উত্তরণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্ব এবং দিক নির্দেশনার কথা উল্লেখ করে সাম্প্রতিক সময়ে গৃহীত সব ধরনের পদক্ষেপ তুলে ধরেন।

তিনি একই সঙ্গে সিএপিএসসিএ এর সব সদস্য দেশকে সম্মিলিতভাবে করোনার এ দুর্যোগময় পরিস্থিতি সাহসের সঙ্গে মোকাবিলা করার জন্য সর্বাত্মক পদক্ষেপ গ্রহণের অনুরোধ জানান। এছাড়ও করোনা মোকাবিলায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং আইকাও দিক নির্দেশনা মোতাবেক সবাইকে একসঙ্গে কাজ করার আহ্বান জানান।

পরবর্তীতে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার গাইডলাইন অনুযায়ী ইন্টারন্যাশনাল এয়ার ট্রান্সপোর্ট অ্যাসোসিয়েশন এবং এয়ারপোর্ট কাউন্সিল ইন্টারন্যাশনালের প্রতিনিধিরা বিশ্বে এভিয়েশন কমিউনিটিকে রক্ষাকল্পে এই রোগের বিভিন্ন প্রতিকারমূলক দিক নির্দেশনা দেন। এছাড়া, সভায় চীন, জাপান, সিঙ্গাপুর এবং দক্ষিণ কোরিয়া করোনা মোকাবিলায় তাদের নিজ নিজ দেশের এভিয়েশন সেক্টরের গৃহীত পদক্ষেপ এবং বিশেষ করে পুনরায় ফ্লাইট চালুর বিষয়ে তাদের গৃহীত পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করেন।

আইকাও-এর এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের আঞ্চলিক পরিচালক অরুণ মিশ্রের সঞ্চলনায় ভিডিও কসফারেন্সে বাংলাদেশ থেকে সিএপিএসসিএ এর কো-চেয়ারপারসন এবং সিএএবি’র এভিয়েশন পাবলিক হেলথ ইন্সপেক্টর বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব.) মো. আব্দুর রব মিয়া, বেবিচকের সদস্য (পরিচালনা ও পরিকল্পনা) এয়ার কমডোর মো. খালিদ হোসেন, সদস্য (নিরাপত্তা) মো. শহীদুজ্জামান ফারুকী, সদস্য (ফ্লাইট স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড রেগুলেশন্স) গ্রুপ ক্যাপ্টেন চৌধুরী মো. জিয়াউল কবীর, পরিচালক (ফ্লাইট স্ট্যান্ডার্ড, রেগুলেশন্স অ্যান্ড ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্স) গ্রুপ ক্যাপ্টেন ইমরানুর রহমান, হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের পরিচালক গ্রুপ ক্যাপ্টেন এএইচএম তৌহিদ-উল-আহসান, বিমানবন্দরের স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ যুক্ত হন।

ভিডিও কনফারেন্সে আইাকাওয়ের এভিয়েশন মেডিসিন সেকশনের প্রধান এবং সিএপিএসসিএ‘র গ্লোবাল প্রোগ্রাম ম্যানেজার ডা. আনসা জর্ডান কানাডায় আইকাও সদর দপ্তর থেকে যুক্ত হন। এসময় তিনি এভিয়েশন সেবা প্রদানকারী সকলের স্বাস্থ্য সুরক্ষা করেও কিভাবে যাত্রীদের স্বাস্থ্যসম্মত সেবা প্রদান করা যায় সে ব্যাপারে আলোচনা করেন।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Loading...