বিশ্বের কোনো সার্বভৌম রাষ্ট্রে দোষী সাব্যস্ত হলে, এমপি হিসেবে অযোগ্য হবেন: হাইকোর্ট

রিট খারিজ

0

কোনও সংসদ সদস্যকে যদি নৈতিক স্খলনজনিত কারণে বিশ্বের কোনো সার্বভৌম রাষ্ট্রের কোনও আদালত দুই বছর বা ততোধিক সময় কারাদণ্ডে দোষী সাব্যস্ত করেন, তবে তিনি সংসদ সদস্য হিসেবে অযোগ্য হবেন বলে হাইকোর্ট এক পর্যবেক্ষণে জানিয়েছেন।

এমন পর্যবেক্ষণ দিয়ে হাইকোর্ট লক্ষ্মীপুর-২ আসন শূন্য ঘোষণা করার সিদ্ধান্তের বৈধতা এবং ২১ জুন এই আসনের উপনির্বাচন অনুষ্ঠানের তফসিলকে চ্যালেঞ্জ করে করা রিট আবেদন খারিজ করেছেন।

আজ মঙ্গলবার বিচারপতি মো. মজিবুর রহমান মিয়া ও বিচারপতি কামরুল হোসেন মোল্লার হাইকোর্ট বেঞ্চ এ পর্যবেক্ষণ দিয়ে রিট আবেদনটি খারিজ করেন। কাজী পাপুলের বোন নুরুন্নাহার বেগম গত ১৫ মার্চ এ রিট আবেদন করেছিলেন।

রিট আবেদনকারীর আইনজীবী মুস্তাফিজুর রহমান জানান, রিট আবেদনকারীরা সংক্ষুব্ধ ব্যক্তি নন বলে তারা এ আবেদন করতে পারেন না জানিয়ে হাইকোর্ট রিট আবেদন খারিজ করেছেন।

আইনজীবী জানান, হাইকোর্ট বেঞ্চ বাংলাদেশের সংবিধানের ৬৬ (২) (ডি) অনুচ্ছেদের সঙ্গে মিল রেখে এ পর্যবেক্ষণ দিয়েছেন। এতে বলা হয়েছে, ‘একজন ব্যক্তি সংসদ সদস্য হিসেবে বা নির্বাচনের জন্য অযোগ্য হবেন, যদি যিনি নৈতিক স্খলনজনিত কারনে কোনও ফৌজদারি অপরাধে দোষী সাব্যস্ত হন এবং দুই বছরের বেশি কারাদণ্ডপ্রাপ্ত হন, যদি না তার মুক্তির পর থেকে পাঁচ বছরের সময়কাল অতিবাহিত হয়।’

কাজী পাপুল ওরফে মোহাম্মদ শহীদ ইসলাম লক্ষ্মীপুর-২ আসন থেকে স্বতন্ত্র সংসদ সদস্য নির্বাচিত হয়েছিলেন এবং ২৮ জানুয়ারি কুয়েতের একটি আদালত তাকে অনৈতিক অর্থ লেনদেন মামলায় তিনিসহ আরও কয়েকজনের চার বছরের কারাদণ্ড দেন। পরে, ২২ ফেব্রুয়ারি সংসদ সচিবালয় একটি প্রজ্ঞাপন জারি করে লক্ষ্মীপুর-২ আসন শূন্য ঘোষণা করে।

রিট আবেদনের বরাত দিয়ে আইনজীবী মোস্তাফিজুর রহমান খান বলেন, জাতীয় সংসদের স্পিকারের অবশ্যই দোষী সাব্যস্ত সংসদ সদস্যের কোনও আবেদন আদালতে বিচারাধীন কিনা, সংবিধান অনুযায়ী সদস্যপদ বাতিল করার ঘোষণার আগে সেই আবেদনের ফলের জন্য অপেক্ষা করতে হবে।

কিন্তু, স্পিকার কাজী পাপুলের সংসদ সদস্যপদ বাতিলের বিষয়ে এই বিধান মানেননি বলে জানান তিনি।

মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘বাংলাদেশের কোনও আদালত সংসদ সদস্য কাজী পাপুলকে দোষী সাব্যস্ত ও সাজা দেয়নি এবং তাকে সাজা দেওয়া কুয়েত আদালত তার সাজা সম্পর্কে সংসদের স্পিকারকে আনুষ্ঠানিকভাবে কিছু জানাননি।’

সূত্র : ডেইলি স্টার

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন