বাংলাদেশ ও ইউরোপের মধ্যে তার্কিশ এয়ারলাইন্সের বাড়তি ফ্লাইট

0

বাংলাদেশের সাথে ইউরোপের সরাসরি বিমান যোগাযোগে বাড়তি ফ্লাইটের ঘোষনা দিয়েছে তার্কিশ এয়ারলাইন্স।

আগামী ৭ জুলাই থেকে ঢাকা ইস্তানবুল রুটে এখন থেকে সপ্তাহে ১০টি ফ্লাইট পরিচালনা করবে তুরস্কের পতাকাবাহী এই বিমান সংস্থা। বর্তমানে এই রুটে সপ্তাহে ৭ টি ফ্লাইট চলছে।

ঢাকা থেকে সরাসরি ইউরোপ মহাদেশে ফ্লাইট পরিচালনা করা একমাত্র বিমান সংস্থা হিসেবে বিগত দশ বছর যাবত বাংলাদেশে চলাচল করছে তার্কিশ এয়ারলাইন্স। বিশেষত ইউরোপ-আমেরিকা ও কানাডা প্রবাসী বাংলাদেশী যাত্রীদের পছন্দের শীর্ষে থাকা সংস্থাটি তাদের দশম বর্ষপূর্তী উদযাপনের অংশ হিসেবেই সপ্তাহে দশটি ফ্লাইট পরিচালনার ঘোষণা দিয়েছে বলে জানিয়েছেন সংস্থার ঢাকা কার্যালয়।

নতুন সময়সূচীর আলোকে সপ্তাহে প্রতিদিন একটি করে ফ্লাইটের পাশাপাশি রবি, বুধ ও বৃহঃস্পতিবার দিন গুলোতে দুটি করে ফ্লাইট পরিচালিত হবে ঢাকা থেকে। সেমতে গ্রীষ্মকালীন সূচীর আওতায় প্রতিদিন সকাল ৬:৩৫ ঘটিকায় এবং রবি, বুধ, বৃহঃস্পতিবার রাত ১০:০৫ ঘটিকায় ঢাকা থেকে তার্কিশ এয়ারলাইন্স এর বিমান পাবেন যাত্রীরা।

যাত্রী সাধারনের সুস্বাস্থ্য, সুরক্ষা ও মঙ্গলকে অগ্রাধিকার দিয়েই করোনা পরবর্তী সূচীতে বিশ্বব্যাপী বিস্তৃত নেটওয়ার্কের সকল দেশের সাথে মিল রেখে ফ্লাইট পরিচালনা করে চলেছে তার্কিশ এয়ারলাইন্স।

সংক্রমনের পরিধি নিয়ন্ত্রনে আসতে থাকা দেশ গুলোতে পূনরায় বিমান চলচলের পরিকল্পনার আলোকে সপ্তাহের প্রতিদিন নিয়মিত ফ্লাইট পরিচালনা করছে সংস্থাটি। এছাড়া যাত্রীদের স্বাস্থ্য নিরাপত্তা বিবেচনায় প্রতিটি ফ্লাইটে বিতরন করা হচ্ছে মাস্ক, সেনেটাইজার ও ওয়েট টিস্যু সহ বিশেষ হাইজেনিক কিট।

১৯৩৩ সালে প্রতিষ্ঠিত তুরস্কের পতাকাবাহী বিমান তার্কিশ এয়ারলাইন্স ৩৩৮ বিমানের বহর নিয়ে সেবা দিয়ে যাচ্ছে যাত্রী ও কার্গো বিভাগ দুটিতে। এর সদর দপ্তর ও হাব তুরস্কের ইস্তানবুলে। তার্কিশ এয়ারলাইন্স তুরস্কের অভ্যন্তরে ৪১টি ডমেস্টিক এবং আন্তর্জাতিক ২৫৭টি গন্তব্যে ফ্লাইট পরিচালনা করে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন