বাংলাদেশিদের জন্য আট শ্রেণীতে ভিসা দিচ্ছে ভারত

অনলাইন ভিসা চালু

0

পর্যটন ছাড়া আট শ্রেণীতে বাংলাদেশি নাগরিকদের জন্য অনলাইন ভিসা চালু করছে ভারতীয় হাইকমিশন। আজ শুক্রবার বাংলাদেশে ভারতীয় দূতাবাসের অফিশিয়াল টুইটারেএ তথ্য জানানো হয়।

যেসব ক্যাটাগরিতে ভিসা পাওয়া যাবে সেগুলো হলো- মেডিকেল, ব্যবসা, চাকরি, সাধারণ প্রবেশ, সাংবাদিক, কূটনৈতিক, অফিসিয়াল ও আনঅফিসিয়াল। তবে দ্রুতই পর্যটকসহ অন্যান্য ক্যাটাগরিতেও ভিসা চালু করার কথাও জানিয়েছে ভারতীয় হাইকমিশন।

ট্রাভেল এজেন্সি কর্মকর্তারা বলছেন, ভারত ভিসা চালুর ঘোষণা দিলেও বাংলাদেশ থেকে ভারতে এখনো ফ্লাইট চলাচল শুরু হয়নি। দুদেশের মধ্য ‌’এয়ার বাবল’ চুক্তি অনুযায়ী বাংলাদেশর তিনটি এবং ভারতের পাঁচটি বিমান সংস্থা যাত্রী পরিবহন করবে। কিন্তু কবে নাগাদ ফ্লাইট চলাচল শুরু হবে তা এখনো চুড়ান্ত হয়নি।

উল্লেখ্য, ভারতের ব্যুরো অফ ইমিগ্রেশন দপ্তরের হিসেব মতে দেশটিতে সবচেয়ে বেশি সংখ্যক পর্যটক যায় বাংলাদেশ থেকেই। চিকিৎসা, পর্যটন এবং ব্যবসাখাতে এসব প্রতিবছর বিপুল লোক বাংলাদেশ থেকে ভারত যায়। কিন্তু করোনা মহামারি ঠেকাতে সীমান্ত বন্ধসহ প্রতিটা দেশের সাথে ভারতও তার ভিসা বন্ধ করে দেয়। ফলে দীর্ঘদিন ধরেই বন্ধ রয়েছে দেশটিতে প্রবেশের সুযোগ। করোনা প্রাদুর্ভাব কিছুটা কমে যাওয়ার ফলেই পুনরায় ভিসা চালু করছে দেশটি।

করোনার কারণে গত ১৩ মার্চ বিকাল থেকে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত সংলগ্ন স্থলবন্দরগুলো দিয়ে বাংলাদেশি নাগরিকদের যাওয়ার সুযোগ বন্ধ হয়ে যায়। পরবর্তীতে আবার তাদের নিষেধাজ্ঞায় বাংলাদেশে অবস্থানরত ভারতীয় নাগরিকদের দেশে ফেরার পথ বন্ধ হয়ে যায়। পরে ভারতে আটকে থাকা কয়েক হাজার বাংলাদেশি স্থল ও আকাশ পথে ফিরে আসেন। অনেক ভারতীয়ও ফিরে যায় স্থল ও আকাশ পথে।

এ ছাড়া ২২ মার্চ থেকে বেনাপোল বন্দরের রেল ও স্থল পথে ভারত সরকার আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ করে দেয়। রেল ও স্থল পথে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য সচল হয়েছে বেশ কিছুদিন আগে থেকেই। এখন শর্ত সাপেক্ষে চালু হয় যাত্রীদের যাওয়া-আসা। করোনা পরিস্থিতিতে এমনিতে বিভিন্ন দেশ এখনও ভিনদেশীদের প্রবেশ অবাধ করেনি। কয়েকটি দেশ শর্তসাপেক্ষে পর্যটকদের প্রবেশের অনুমতি দিচ্ছে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।