টানা ৬ মাস ঘুমিয়ে কাটান যে সুন্দরী কন্যা!

0

মহাকবি বাল্মীকির লেখা রামায়ণের সেই ‘কুম্ভকর্ণ’ ফিরে এলেন বাস্তবে৷ তবে বিশালদেহী রাক্ষস হয়ে নয়৷ এক সুন্দরী হয়েই তার আগমন হল৷ ভোল পাল্টালেও স্বভাব পালটায়নি৷ এখনো দিব্বি ঘুমকাতুরে৷ কুম্ভকর্ণের মতোই টানা ৬ মাস ঘুমিয়ে কাটান এই সুন্দরী!

অবাক করা ঘটনা৷ ব্রিটেনের ২২ বছরের তরুণী বেথ গোডিয়ার যেন এ যুগের ‘লেডি কুম্ভকর্ণ’৷ তিনি একবার শুয়ে পড়লে ৬ মাসের আগে চোখ খোলেন না৷ বহু চেষ্টা করেও তাকে জাগানো যায় না৷ আত্মীয়রা অধীর আগ্রহে বেথের ঘুম ভেঙে জেগে ওঠার প্রহর গুণতে থাকেন৷

বেথ গডিয়ার এক বিরল রোগে আক্রান্ত৷ ক্লিন-লেভিন সিনড্রোম নামেই পরিচিত এই রোগ৷ একশ জনের মধ্যে একজন এই রোগে আক্রান্ত হন৷ রোগীর এমনই অবস্থা হয় যে, দিনের পর দিন মাসের পর মাস সে ঘুমিয়ে থাকে৷ দুচোখ জুড়ে নেমে আসে নিশ্চিন্তের ঘুম৷ সেই ঘুম ভাঙলেই রোগীর খিদে পায়৷ ঠিক যেমন রাবণের ভাই কুম্ভকর্ণ ৬ মাস ঘুমিয়ে প্রচুর খেতেন৷

ক্লিন-লেভিন সিনড্রোম অর্থাৎ ঘুম রোগে আক্রান্তরা জেগে উঠলে দু সপ্তাহের মতো সময় পান৷ সেই সময় তাদের দেখলে কিছুই মনে হবে না৷ একেবারে স্বাভাবিক আচরণ৷ ৬ মাস ঘুমিয়ে থাকার পর বেথ গডিয়ার যখন জেগে ওঠেন তখন এমনই দেখতে লাগে৷

১৭ বছর বয়সে ঘুম রোগে আক্রান্ত হন বেথ৷ হুঁশ ফিরলে প্রাত্যহিক কর্ম করা ও খেতে পারেন তিনি৷ মাত্র ১৪ দিনের জন্য তার ঘুম ভাঙে৷ ঘুম রোগের কারণে লেখাপড়া ছাড়তে হয়েছে৷ কারো সঙ্গে দেখা করতে পারেন না তিনি৷ তবে ঘুমরোগী লেডি কুম্ভকর্ণের কিন্তু প্রেমিক রয়েছে৷ তিনি প্রায়ই বেথকে দেখতে আসেন৷ ঘুমিয়ে থাকা প্রেমিকা বেথের কাছে বসে থাকেন৷ ৬ মাস পর পর যখন ঘুম ভাঙে সে সময় দুজনের কথা হয়

চিকিৎসকরা এই রোগের কারণ খুঁজছেন৷ চলছে বিস্তর গবেষণা৷ তারই মধ্যে ঘুমিয়ে জীবন কাটাচ্ছেন বেথ ৷

করোনাময় বিশ্ব : কেমন আছেন স্পেনপ্রবাসী বাংলাদেশিরা

১৮ জুলাই, শনিবার – স্পেন সময় : বিকেল ৫.৩০ টা, বাংলাদেশ সময় : রাত ৯.৩০ টা সঞ্চালনায় : আহমেদ তোফায়েল, সাংবাদিক ও উপস্থাপকসমন্বয় ও সহযোগিতা : কবীর আল মাহমুদ, লেখক ও সাংবাদিক, অতিথি এনায়েতুল করিম তারেক, সভাপতি, বাংলাদেশ এসোসিয়েশন ইন স্পেনএম এইচ সোহেল ভূঁইয়া, সভাপতি, বৃহত্তর ঢাকা এসোসিয়েশন ইন স্পেনকামরুজ্জামান সুন্দর, সাধারণ সম্পাদক বাংলাদেশ এসোসিয়েশন ইন স্পেনমো. মনোয়ার পাশা , সভাপতি, এসোসিয়েশন. কুলতুরাল দে সুনামগঞ্জ এন কাতালুনিয়া

Posted by AkashJatra on Saturday, July 18, 2020

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Loading...