২৪ নভেম্বর আকাশে ডানা মেলছে এয়ার অ্যাস্ট্রা

বাংলাদেশের নতুন এয়ারলাইন্স

0

দেশের বেসরকারি নতুন বিমানসংস্থা এয়ার অ্যাস্ট্রা আগামী ২৪ নভেম্বর বাণিজ্যিক ফ্লাইট শুরু করতে যাচ্ছে। ওই দিন সকাল ৮টায় ঢাকা থেকে কক্সবাজারে ফ্লাইটের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিক যাত্রা শুরু করবে এয়ারলাইনসটি। এর মাধ্যমে ৯ বছর পর পাখা মেলতে যাচ্ছে দেশের নতুন কোনো এয়ারলাইনস।

এভিয়েশনের সব খবর জানতে, এখানে ক্লিক করে আকাশযাত্রার ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকার অনুরোধ

আজ মঙ্গলবার ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের অভ্যন্তরীণ টার্মিনালে এক অনুষ্ঠানে এয়ার অ্যাস্টার উদ্বোধন করেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এম মাহবুব আলী। বিশেষ অতিথি ছিলেন বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান।

Travelion – Mobile

বিমান প্রতিমন্ত্রী বলেন,’এয়ার অ্যাস্ট্রা তাদের যাত্রা শুরু করার ফলে অভ্যন্তরীণ রুটের যাত্রীদের পছন্দের সুযোগ আরও বাড়ল। এর ফলে দেশীয় এয়ারলাইনসগুলোর ইতিবাচক প্রতিযোগিতায় ও সহযোগিতার ক্ষেত্র প্রতিষ্ঠিত হবে যা যাত্রীদের জন্য সহায়ক হবে বলে আমি মনে করি।

এয়ার অ্যাস্ট্রার বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালনার ঘোষণা উপলক্ষে কেক কাটছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এম মাহবুব আলী। ছবি: সংগৃহীত
এয়ার অ্যাস্ট্রার বাণিজ্যিক ফ্লাইট পরিচালনার ঘোষণা উপলক্ষে কেক কাটছেন বেসামরিক বিমান পরিবহন ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এম মাহবুব আলী। ছবি: সংগৃহীত

প্রায় ৯ বছর পর দেশে নতুন একটি এয়ারলাইনস হিসেবে আত্মপ্রকাশ করতে পেরে এয়ার অ্যাস্ট্রা গর্বিত, এমন অনুখূতি জানিয়ে এয়ারলাইন্সটির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ইমরান আসিফ বলেন,’ নিরাপত্তা, সাশ্রয়ী ভাড়া, সময়ানুবর্তীতার ও উন্নত সেবার মাধ্যমে যাত্রীদের সবেচয়ে পছন্দের ও নির্ভরযোগ্য এয়ারলাইন হিসাবে নিজের প্রতিষ্ঠিত করতে দৃঢ়প্রতিবদ্ধ’। যাত্রী টানতে জোর দিচ্ছে সংস্থাটি’।

এয়ারলাইনসটিতে বিনিয়োগ করছেন জাপান প্রবাসী বাংলাদেশি ব্যবসায়ী হারুন অর রশিদ। আর কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস।

এয়ার অ্যাস্ট্রা বহরে এরই মধ্যে দুটি এটিআর ৭২-৬০০ উড়োজাহাজ যুক্ত হয়েছে। ফ্রান্সে নির্মিত টার্বোপ্রপ প্রযুক্তির এটিআর ৭২-৬০০ উড়োজাহাজ ৭০ জন যাত্রী বহন করবে।

এয়ার অ্যাস্ট্রা
এয়ার অ্যাস্ট্রা

চলতি বছরের মধ্যেই আরও দুটি উড়োজাহাজ এর বহরে যুক্ত হবে। ২০২৩ সালের মধ্যে ১০টি উড়োজাহাজ বহরে যুক্ত করার লক্ষ্য আছে এয়ার অ্যাস্ট্রার।

শুরুতে ঢাকা-কক্সবাজার-ঢাকা রুটে ৩টি ও ঢাকা-চট্টগ্রাম-ঢাকা রুটে ২টি ফ্লাইট পরিচালনা করবে এয়ার অ্যাস্ট্রা। পর্যায়ক্রমে দেশের সব অভ্যন্তরীণ রুটেই ফ্লাইট পরিচালনা করবে এয়ার অ্যাস্ট্রা।

ঢাকা-কক্সবাজার রুটে ওয়ান ওয়ে সর্বনিন্ম ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৪৭৯৯ টাকা এবং ঢাকা-চট্টগ্রাম রুটে ওয়ান ওয়ে সর্বনিন্ম ভাড়া নির্ধারণ করা হয়েছে ৩৬৯৪ টাকা।

দেশের নতুন বেসরকারি উড়োজাহাজ চলাচল সংস্থা এয়ার অ্যাস্ট্রা
দেশের নতুন বেসরকারি উড়োজাহাজ চলাচল সংস্থা এয়ার অ্যাস্ট্রা

এয়ার অ্যাস্ট্রার প্রাথমিক পার্কিং স্টেশন হবে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর। তবে সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরকে বিকল্প স্টেশন হিসেবে রাখা হয়েছে। প্রয়োজন হলে রাতে সিলেট বিমানবন্দরে এয়ারক্রাফটগুলো রাখা হবে।

ইমরান আসিফ বলেন, ‘আমরা ইউএস-বাংলার সঙ্গে মার্কেট ও ট্রাফিক ডাটা শেয়ার করব। কারিগরি যেসব সহযোগিতা প্রয়োজন (গ্রাউন্ড হ্যান্ডলিং, ক্যাটারিং, মেইনটেন্যান্স), এসব ক্ষেত্রে ইউএস-বাংলার সঙ্গে চুক্তি করেছি।’

ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনসের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) মো. কামরুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা এয়ার অ্যাস্ট্রাকে পরিচালনা সংক্রান্ত বিভিন্ন সহযোগিতা দিচ্ছি। আমাদের সঙ্গে তাদের অপারেশনাল, ইঞ্জিনিয়ারিং, গ্রাউন্ড সার্ভিস অ্যাগ্রিমেন্ট হয়েছে।’

এভিয়েশনের সব খবর জানতে, এখানে ক্লিক করে আকাশযাত্রার ফেসবুক পেইজে লাইক দিয়ে যুক্ত থাকার অনুরোধ

অ্যারো বেঙ্গলের মাধ্যমে ১৯৯৭ সালে দেশে বেসরকারি এয়ারলাইনসের যাত্রা শুরু হয়। এরপর মোট ১২টি বেসরকারি এয়ারলাইনস এলেও টিকে আছে মাত্র দুটি। বর্তমানে বেসরকারি খাতের ইউএস-বাংলা এয়ারলাইনস ও নভো এয়ার অভ্যন্তরীণ এবং আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে। অন্যদিকে রাষ্ট্রীয় প্রতিষ্ঠান বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইনসও অভ্যন্তরীণ এবং আন্তর্জাতিক রুটে ফ্লাইট পরিচালনা করছে।

বেবিচকের তথ্য অনুযায়ী, দেশে করোনা মহামারি প্রভাব কমার পর ২০২১ সালে অভ্যন্তরীণ রুটে যাতায়াতকারী যাত্রী ছিল প্রায় ৫০ লাখ। এ বছর তা আরও বাড়বে বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

al sohar – mobile

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন