স্পেনে বিষাক্ত বর্জ্যের বস্তায় লুকিয়ে থাকা অভিবাসী উদ্ধার

0

চিমনির ছাইভর্তি মুখবন্ধ প্লাস্টিকের ব্যাগের মধ্যে এক ব্যক্তিকে অচেতন অবস্থায় দেখতে পান বন্দরের এক কর্মকর্তা। চিমনির ওই ছাই মূলত কয়লা পোড়ানোর পর যেসব উপজাত অবশিষ্ট থাকে সেগুলো। ইউরোপের বর্জ্য আইন অনুযায়ী, এই বর্জ্য বিষাক্ত।

স্পেনের মেলিলা বন্দরের ওই কর্মকর্তা প্রথমে মানুষের পায়ের মতো কোনো কিছুর আকৃতি দেখতে পান। এরপর তিনি দ্রুত অ্যাম্বুলেন্স ডাকেন। প্রথমে তিনি ভেবেছিলেন, বস্তার ভেতর লাশ। তবে ওই ব্যক্তিকে বস্তা থেকে বের করার পর তাঁর জ্ঞান ফিরে আসে এবং তিনি রক্ষা পান। গত শুক্রবার বিষাক্ত বর্জ্যের বস্তায় লুকিয়ে থাকা এই অভিবাসীকে উদ্ধার করা হয়।

আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা এএফপির খবরে বলা হয়, গত শুক্রবার অবৈধভাবে নৌকায় করে স্পেনের মূল ভূখণ্ডের দিকে পাড়ি দেওয়ার সময় ওই বন্দর থেকে ৪১ অভিবাসী পুলিশের হাতে ধরা পড়েন। তাঁদের কেউ কেউ লরি বা অন্য যানবাহনে লুকিয়ে ছিলেন। পুলিশ বলছে, অনেকেই কনটেইনারের মধ্যে লুকিয়ে ছিলেন। এসব কনটেইনারে ভাঙা কাচ ভরা ছিল। তাই অনেক অভিবাসীর শরীরের বিভিন্ন অংশ কেটে গেছে।

গত বছর সমুদ্র ও স্থলপথে ৪১ হাজারের বেশি অবৈধ অভিবাসী স্পেনে ঢুকেছেন, যা ২০১৯ সালের তুলনায় ৩০ শতাংশ বেশি। বিপদজনক সমুদ্রপথ পাড়ি দিয়ে তাঁদের মধ্যে অর্ধেকের বেশি ক্যানারি দ্বীপে নেমেছেন।

অবৈধ অভিবাসী অনুপ্রবেশ ঠেকাতে ভূমধ্যসাগরে তদারকি বাড়ানোর পর ইউরোপের দেশগুলোতে যেতে এখন বিকল্প পথ ব্যবহার শুরু হয়েছে। গত বছর ১ হাজার ৫০০ অভিবাসী মরক্কো উপকূল দিয়ে মেলিলা পৌঁছেছেন।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন