সৌদি এয়ারলাইন্স বাংলাদেশিদের হোটেল বুকিংয়ে সহায়তা করবে না

0

প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকার জন্য এখন থেকে হোটেল বুকিংয়ের ব্যাপারে কোনো সহায়তা দিতে পারবে না সৌদি এরাবিয়ান এয়ারলাইন্স। এ ঘোষণার পর ভোগান্তিতে পড়েছেন সৌদি আরবগামী বাংলাদেশি কর্মীরা।

করোনা সংক্রমণ বাড়ার কারণে সৌদি আরবে যেতে হলে সাত দিনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে থাকার জন্য হোটেল বুকিং এবং মেডিকেল ইনস্যুরেন্সের দরকার হচ্ছে। সৌদি আরব কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, এই আইন ভাঙলে তাকে দেশে পাঠিয়ে দেওয়া হবে এবং মধ্যপ্রাচ্যের দেশটিতে প্রবেশ নিষিদ্ধ করা হবে।

বুধবার রাজধানীর কারওয়ান বাজারে সৌদি এরাবিয়ান এয়ারলাইন্স অফিস ও বিমানবন্দরের সামনে বহু সংখ্যক সৌদি আরবগামী কর্মীদের হোটেল বুকিংয়ের জন্য এলোপাতাড়িভাবে ঘুরতে দেখা গেছে। তবে তাদের সাহায্য করার মতো কাউকে খুঁজে পাওয়া যায়নি। প্রবাসীরা জানান, হোটেল বুকিংয়ের বিষয়ে এয়ারলাইন্স তাদের দায়িত্ব এড়িয়ে যাচ্ছে।

বাংলাদেশের রিক্রুটিং এজেন্সি ওয়েলফেয়ার অর্গানাইজেশনের সভাপতি ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘হোটেল বুকিংয়ের জটিলতার কারণে অনেক অভিবাসী শ্রমিক নির্ধারিত সময়ে সৌদি আরবে যেতে পারবেন না। এর ফলে অনেকের ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাবে।’

রিক্রুটিং এজেন্সি ঐক্য পরিষদের সভাপতি টিপু সুলতান বলেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতিতে প্রবাসী শ্রমিকদের হোটেল বুকিংয়ে সহায়তা করার জন্য প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রীর এগিয়ে আসা উচিত।’

গত মঙ্গলবার বাংলাদেশে সৌদি এয়ারলাইন্সের কান্ট্রি ম্যানেজার তারিক এ আলওয়াইদি বাংলাদেশি কর্মীদের ঝামেলা এড়াতে কোয়ারেন্টিনে থাকার জন্য নির্দিষ্ট ওয়েবসাইটের মাধ্যমে হোটেল বুকিংয়ের আহ্বান জানান।

তিনি জানান, যদি কোনো বাংলাদেশি যাত্রী ফ্লাইট মিস করেন বা বিভিন্ন কারণে তাদের ফ্লাইটের তারিখ পরিবর্তনের দরকার হয়, সেক্ষেত্রে বাংলাদেশি ‘ভাইবোনদের’ কাছ থেকে কোনো ফি ছাড়া নতুন টিকিট সরবরাহ করবে সৌদি আরবের রাষ্ট্রীয় এয়ারলাইন্স। আর, যারা ফ্লাইট মিস করেছেন তাদের অন্য ফ্লাইটে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হবে।

হোটেল বুকিংয়ের জন্য সৌদিয়া হলিডেজ ওয়েবসাইটের এই লিঙ্কে https://holidaysbysaudia.com যেতে বলা হয়। এছাড়া সৌদি আরবগামী যাত্রীদের হোটেল বুকিং নিশ্চিত করতে তাদের নিয়োগকারী, কাফিল, কোম্পানি, সংশ্লিষ্ট ট্রাভেল এজেন্সি অথবা ওয়েবসাইটে যোগাযোগ করতে বলা হয়।

এছাড়া ‘সৌদিয়া হলিডেইস ওয়েবসাইটের’ মাধ্যমে ছাড়া কোনো হোটেল বুকিং গ্রহণ করা হবে না উল্লেখ করে তিনি জানান, প্লেন টিকিট ও কোয়ারেন্টিন হোটেল প্যাকেজ নিশ্চিত করা ছাড়াও যাত্রীদের ফ্লাইট ছাড়ার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে করা করোনাভাইরাসের পিসিআর টেস্টের রিপোর্ট দেখাতে হবে।
সূত্র : দ্য ডেইলি স্টার

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন