লেবাননে ‘লকডাউন’ অমান্যে জরিমানা, রাগে গাড়ি জ্বালিয়ে দিলেন ড্রাইভার!

0

মরণাঘাতি করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে লেবাননে ‘লকডাউন’ চলছে। জনগণকে বাড়ি-বদ্ধ রাখতে সেনাবাহিনীসহ নিরাপত্তা বাহিনীকে পাহারায় নামানো হয়েছে। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া রাস্তায় যান ও জনগণের চলাচল নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

তবে অনেকেই আইন ভঙ্গ করছেন। আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অনেককে গ্রেপ্তার করে সাজা দিচ্ছে। তবে এবার লেবাননের এক ট্যাক্সি ড্রাইভার যেটা ঘটালেন সেটা অনেকটা চমকে যাওয়ার মতো।

লকডাউন অমান্য করে রাস্তায় গাড়ি নিয়ে বেরিয়েছিলেন তিনি। পুলিশ তাকে আটক করে জরিমানা করায় শহরের প্রধান সড়কে নিজের নতুন গাড়ি আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দিলেন তিনি।

মঙ্গলবার রাজধানী বৈরুত বিমানবন্দরের প্রধান সড়কে ট্যাক্সি নিয়ে বেরিয়েছিলেন ওই চালক। পরে পুলিশ তাকে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে দেওয়ার অপরাধে আটক করে জরিমানা করে। এর পর উত্তেজিত হয়ে তিনি আগুন দিয়ে নিজেই নতুন গাড়িটি পুড়িয়ে দেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হওয়া একটি ভিডিওতে দেখা যায়, একটি সাদা রেনল্ট গাড়ি আগুনে জ্বলছে। নিরাপত্তা সদস্যরা সেটা নিভানোর চেষ্টা করছেন। এসময় স্পষ্ট চিৎকার-চেঁচামেচি শোনা যাচ্ছিল।

গত সপ্তাহের শেষে লেবাননের সামরিক ও সুরক্ষা বাহিনী কোভিড-১৯ করোনভাইরাস আটকানোর জন্য চূড়ান্ত প্রয়োজনীয়তা ছাড়া মানুষকে বাড়িতে থাকার নির্দেশ দিয়েছে। আদেশ অমান্যকারীদের কঠোর সাজা দেওয়া হচ্ছে।

এ দিকে ট্যাক্সি চালকসহ গণপরিবহন চালকদের সংগঠন মঙ্গলবার বিবৃতি জারি করে চালকের ওপর চাপিয়ে দেওয়া জরিমানার নিন্দা জানিয়েছে, যেহেতু তারা হাসপাতালের নার্স ও বেকারি কর্মীদের মতো জরুরী মানুষদের কর্মস্থলে আনা-নেওয়া কাজে নিয়োজিত।

বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, লেবাননের হাজার হাজার ট্যাক্সি ড্রাইভার রয়েছেন যারা প্রতিদিন উপার্জনের উপর নির্ভর করেন এবং তাদের পিছনে সামাজিক সুরক্ষা জাল নেই। ২০১২ সালের আন্তর্জাতিক শ্রম সংস্থার জরিপ অনুসারে, এই অনানুষ্ঠানিক কর্মীরা লেবাননের কর্মীবাহিনীর প্রায় ৫৫ শতাংশ।

“কমিটি সরকারকে এই কঠিন পরিস্থিতিতে ড্রাইভারদের ন্যূনতম শালীন জীবনমান নিশ্চিত করার জন্য দ্রুত বিকল্প সমাধানের সন্ধান করার জন্য সরকারকে আহ্বান জানিয়েছে।”

লকডাউন এবং করোনভাইরাসের সংক্রামণের ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও, এই লোকদের মধ্যে অনেকে তাদের পরিবারের অন্ন যোগাতে জন্য পর্যাপ্ত অর্থ উপার্জনের জন্য কেবল রাস্তা নেমেছে।

এই ঘটনা ও বিবৃতির কয়েক ঘন্টা পরেই ট্যাক্সি ড্রাইভারকে আরেকটি গাড়ি কিনতে সএবং “তার আয়ের উত্স ফিরে পেতে” সক্ষম করার জন্য একটি GoFundMe সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি পেইজ খোলা হয়েছে।

করোনাভাইরাসে লেবাননে এখন পর্যন্ত ৩০৪ জন আক্রান্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে চার জনের।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Loading...