রানওয়েতে আটকে গেলো উড়োজাহাজ, ঠেলে সরালেন যাত্রীরা! (ভিডিও)

0

একদল লোক একটি উড়োজাহাজকে রানওয়ে থেকে ঠেলে সরিয়ে নেওয়ার দেওয়ার অস্বাভাবিক দৃশ্যের একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে। বুধবার নেপালের একটি বিমানবন্দরে ‘তারা এয়ার’-এর একটি উড়োজাহাজকে যাত্রীদের ধাক্কা দেওয়ার এই ঘটনা।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়, নেপালের কোলটি জেলার বাজুরা বিমানবন্দরে অবতরণের সময় তারা এয়ারের উড়োজাহাজটির পিছনের চাকা ফেটে যায়, যার কারণে এটি রানওয়ে থেকে সরে যেতে পারেনি।

ওই সময় আরেকটি উড়োজাহাজ অবতরণের জন্য আকাশে চক্কর দিচ্ছিল। রানওয়ে অবরুদ্ধ থাকায় সেটা নামতে পারছিল না। এটি লক্ষ্য করে, বিমানবন্দরের যাত্রীরা অচল উড়োজাহাজটিকে রানওয়ে থেকে ঠেলে দিতে নিরাপত্তা কর্মীদের সাথে যোগ দেন।

ঘটনার একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে শেয়ার করেন বিমানবন্দরেই থাকা অপর ফ্লাইটের এক যাত্রী। এরপরই ওই ভিডিওটি ভাইরাল হয়।

ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে- যাত্রী ও নিরাপত্তারক্ষীসহ প্রায় ২০ জনের একটি দল উড়োজাহাজটিকে ঠেলছেন। একপর্যায়ে ঠেলে ঠেলে সরিয়ে নেন রানওয়ে থেকে।

তারা এয়ারের উড়োজাহাজটি সফলভাবে পথ থেকে সরে যাওয়ার পর আকাশে থাকা উড়োজাহাজটি নিরাপদে অবতরণ করতে সক্ষম হয়। উড়োজাহাজের পাংচার টায়ারও কিছুক্ষণ পরেই প্রতিস্থাপন করা হয়।

নেপালের ইয়েতি এয়ারলাইন্সের সহযোগী প্রতিষ্ঠান তারা এয়ার। ইয়েতি এয়ারলাইন্সের মুখপাত্র সুরেন্দ্র বরতৌলামিডিয়াকে বলেছেন, তারা এয়ার 9N-AVE উড়োজাহাজটি হুমলার সিমকোট থেকে বাজুরা বিমানবন্দরে অবতরণ করেছিল। তবে, এর টায়ার ফেটে যাওয়ার পরে, মাথার উপর দিয়ে উড়ন্ত আরেকটি উড়োজাহাজ অবতরণ করতে পারেনি। উড়োজাহাজটিকে অন্য দিকে টেনে আনার জন্য কোন অবকাঠামো না থাকায়, যাত্রীরা সরানোর জন্য বিমানবন্দরের কর্মকর্তাদের সাথে যোগ দেয় যাতে ফ্লাইট অপারেশন পুনরায় শুরু করা যায়।

আরও পড়তে পারেন :
জিম্বাবুয়ের প্রধান বিমানবন্দর চলছে রাডার ছাড়াই!
মালয়েশিয়া থেকে ফ্লাইটে বোমার ভুয়া খবর দিয়েছিল আলমগীর

মাইক্রোব্লগিং প্ল্যাটফর্মে ভিডিওটি শেয়ার করার সময় একজন টুইটার ব্যবহারকারী লিখেছেন, “শুধু নেপালে,” যেখানে এটি হাজার হাজার ভিউ এবং প্রতিক্রিয়া পেয়েছে।

সম্প্রতি আরও একটি উড়োজাহাজ অদ্ভুত কারণে খবর তৈরি করেছিল। দিল্লি বিমানবন্দরের কাছে একটি ফুট ওভারব্রিজের নীচে আটকে থাকা এয়ার ইন্ডিয়ার উড়োজাহাজের ফুটেজ সামাজিক মিডিয়াতে ব্যাপকভাবে ভাইরাল হয়েছে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন