যুক্তরাষ্ট্রে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বাড়ি ভাড়া দেওয়ায় বাংলাদেশির ১ বছরের জেল

0
Travelion – Mobile

যুক্তরাষ্ট্রে অস্বাস্থ্যকর পরিবেশে বাড়ি ভাড়া দিয়ে পাবলিক হেলথ নিয়ম অমান্য করায় এক বাংলাদেশিকে এক বছর কারাদন্ড দিয়েছে স্থানীয় আদালত। তার নাম মোহাম্মদ আবেদিন (৫৪)।

নিউইয়র্কের বাফেলোতে বসবাসকারী এই বাংলাদেশির বিরুদ্ধে অভিযোগ ছিল, লিড পয়জন (সীসার বিষক্রিয়া) পাওয়ার পরও তিনি নিজ বাড়িটি ভাড়া দিয়ে আসছিলেন। স্বাস্থ্য বিভাগ (হেলথ ডিপার্টমেন্ট) কয়েকবার তাকে নোটিশ করলেও তিনি তোয়াক্কা করেননি। সিটি কোর্টে মামলা উঠার পর শুনানীতে তিনি আইন অমান্য করাসহ সকল দোষ স্বীকার করেন।

জানা গেছে, ২০১৯ সালে হেলথ ডিপার্টমেন্ট পরিদর্শন দল মোহাম্মদ আবেদিনের ভাড়া বাসায় অবস্থানরত এক শিশুর রক্তে লিড পায়। তারা লিড দূর করতে এগিয়ে আসলেও বাড়ির মালিক আবেদিনের কাছ থেকে সাড়া পায়নি। অগত্যা স্বাস্থ্য বিভাড়ের কর্মীরা বাড়িটিতে ‘ ডু নট অকুপাই’ নোটিশ টানিয়ে দেয়।

amar lab – mobile

কিন্তু পরে মি. আবেদিন তা তুলে ফেলেন এবং বাড়িটি ভাড়া দেয়া অব্যাহত রাখে। হেলথ ডিপার্টমেন্ট আবারও নোটিশ লাগায়। তারপরও তিনি সরে আসেন নি।

নির্দেশ না মানায় শেষ পর্যন্ত কাউন্টির পক্ষ থেকেই তার বিরুদ্ধে পাবলিক হেলথ আইন অমান্য করায় সিটি কোর্টে মামলা দায়ের করা হয়।

আদালতের রায় অনুযায়ী, মোহাম্মদ আবেদিন আগামী ১০ আগষ্ট থেকে তিনি ১ বছরের জন্য জেল সাজা ভোগ করতে শুরু করবেন ।

প্রসঙ্গত, লিড পয়জন বা সীসার বিষক্রিয়া, যা প্লাম্বিজম এবং স্যাটার্নিজম নামেও পরিচিত। এটি এক ধরনের ধাতব বিষক্রিয়া যা শরীরে সীসার কারণে ঘটে। উপসর্গগুলির মধ্যে পেটে ব্যথা, কোষ্ঠকাঠিন্য, মাথাব্যথা, বিরক্তি, স্মৃতিশক্তির সমস্যা, বন্ধ্যাত্ব, এবং হাত ও পায়ে শিহরণ থাকতে পারে। এর ফলে আচরণগত সমস্যা হতে পারে। কিছু প্রভাব স্থায়ী হয়। গুরুতর ক্ষেত্রে রক্তশূন্যতা, খিঁচুনি, কোমা বা মৃত্যু ঘটতে পারে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন