যুক্তরাজ্যে কেক বানিয়ে সেরা বিশে বাংলাদেশি আমাল

0

যুক্তরাজ্যের জনপ্রিয় টিভি শো ‘জুনিয়র বেক অফ’ প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বের ২০ জনের মধ্যে জায়গা করে নিয়েছেন ব্রিটিশ-বাংলাদেশি আমাল (১৩)।

চ্যানেল ফোর অনুষ্ঠানটি প্রচার করে গত ৪ নভেম্বর থেকে। তিন সপ্তাহ ধরে অনুষ্ঠানটি চলে তিনটি চ্যানেলে। আমাল হচ্ছে প্রথম ব্রিটিশ-বাংলাদেশি যে চ্যানেল ফোর আয়োজিত ‘জুনিয়র বেক অফ ২০১৯’ অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার সুযোগ পেয়েছে।

সাসেক্সে বসবাসরত প্রবাসী বাংলাদেশি আবু রানা এবং রাহনুমা তাবাসসুম একমাত্র সন্তান আমাল কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বিতার মধ্য দিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতার সেরা চারেও পৌঁছে যায় ।

যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন জায়গা নয় থেকে পনেরো বছর বয়সী প্রায় চার হাজার শিশু এ অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার জন্য আবেদন করে। আবেদনকারীদের মধ্য থেকে দুই হাজার জনকে বাছাই করা হয়, যাদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হয় বিভিন্ন ধাপে নানা প্রতিযোগিতা।

সব শেষে চুলচেরা বিশ্লেষণের মাধ্যমে বাছাই করা হয় সেরা বিশজন প্রতিযোগীকে। চ্যানেল ফোর-এর পর্দায় এদেরকে দেখা যাবে।

প্রতিযোগিতাটির ওয়েব সাইটে থেকে জানা যায়, সাত বছর আগে টিভিতে বেকিং প্রতিযোগিতা দেখে আমাল প্রেমে পড়ে। পরিবার ও বন্ধুদের জন্য বড় কেক বানানোর মধ্য দিয়ে আমালের বেকিং এর প্রতি আগ্রহ আরও বেড়ে যায়। সম্প্রতি সে তার কাজিন এর ১৬ তম জন্মদিনে দুই স্তর বিশিষ্ট বাটারক্রিমের কেক তৈরির মধ্য দিয়ে নিজের দক্ষতা দেখিয়েছে।

ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখা আমাল এর নেশা কেবলই কেক বানানোয় আটকে নেই। পড়াশোনার বাইরে সে পিয়ানো বাজায়, নাটক পড়ে এবং অ্যাথলেটিক্স ও জিমন্যাস্টিকেও তার আগ্রহ রয়েছে।

মেয়ের এমন সাফল্যে উচ্ছ্বাসিত মা রাহনুমা তাবাসসুম বলেন, “এ গর্ব শুধু আমাদের নয়, এ গর্ব আপনাদের সবার, এ গর্ব পুরো বাঙালি জাতির, এ গর্ব পুরো বাংলাদেশের। এই বিশাল অর্জন বিশ্বের দরবারে বাংলাদেশকে নিয়ে এসেছে বেকিংয়ের জগতে।এটি আমাদের জন্য আকাশ ছোঁয়া আনন্দের মুহূর্ত।”

আমালের প্রচণ্ড আত্মবিশ্বাস তাকে জুনিয়র বেক অফ এর চূড়ান্ত পর্বে নিয়ে যায় এবং আমাল তার সর্বোচ্চ অর্জন নদীমাতৃক বাংলাদেশকে উৎসর্গ করেছে, যোগ করেন আমালের মা।

[প্রিয় পাঠক, আকাশযাত্রা প্রবাস বিভাগে আপনিও লিখতে পারেন। রাজনৈতিক, সামাজিক ও সাংস্কৃতিকসহ কমিউনিটি ও সংগঠনের নানান খবর, ভ্রমণ, আনন্দ-বেদনার গল্প, ছোট ছোট অনুভূতি,দেশের স্মৃতিচারণসহ যে কোনো বিষয়ে লিখে পাঠাতে পারেন। লেখা ছবিসহ মেইল করুন [email protected] এই ঠিকনায়]

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Loading...