মিশরে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য নিজস্ব কবরস্থান

0

মিশরে প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য প্রথমবারের মতো একটি স্থায়ী কবরস্থানের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এখানে প্রবাসীদের বাংলাদেশি প্রথা অনুযায়ী শরিয়ত সম্মতভাবে দাফনের করা যাবে।

দেশটির রাজধানী কায়রোর কাছে অবুর শহরে সরকারিভাবে অনুমোদিত বিশালাকার ‘দারুল হক ’ কবরস্থানের একটি অংশ কিনে এই উদ্যাগ নিয়েছে বাংলাদেশে দূতাবাস। মিসরপ্রবাসী একজন বাংলাদেশি জমি কেনার পুরো খরচ বহন করেছেন।

বুধবার (৮ সেপ্টেম্বর) কায়রোতে বাংলাদেশ দূতাবাসে ‘দারুল হক’ গুরুস্তান (কবরস্থান) কর্র্তপক্ষের সঙ্গে জায়গা কেনার চুক্তি সম্পাদিত হয়।

মিশরে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মনিরুল ইসলাম উপস্থিতিতে দূতালয় প্রধান মোহাম্মাদ ইসমাইল হূসাইন এবং দারুল হক গুরুস্তান প্রকল্পের মিশরীয় মালিক প্রকৌশলী আলা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেন।

কবরস্থানের জায়গা কেনার চুক্তি অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মনিরুল ইসলাম এবঙ কবরস্থানের মালিকসহ দূতাবাসের কর্মকর্তারা
কবরস্থানের জায়গা কেনার চুক্তি অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত মনিরুল ইসলাম এবঙ কবরস্থানের মালিকসহ দূতাবাসের কর্মকর্তারা

এ সময় দূতাবাসের হিসাব রক্ষক ফারুক হোসেন, কল্যাণ কর্মকর্তা মো. ইদরিস, সোশ্যাল সেক্রেটারি রেদোয়া এবং দারুল হক গুরুস্তান প্রকল্প ব্যবস্থাপক মো. নাবিল, দূতাবাসের উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত বলেন, নিজস্ব কবরস্থানের ব্যবস্থার মধ্য দিয়ে মিশর প্রবাসী বাংলাদেশিদের দীর্ঘদিনের একটি প্রত্যাশা পূরণ হয়েছে। এর ফলে বাংলাদেশিদের দাফন প্রক্রিয়া সহজে ও দ্রুত সম্পন্ন করা সম্ভব হবে।

তিনি এই মহতী উদ্যোগে সহায়তায় জমির মূল্যে প্রদানকারীর নাম প্রকাশে ইচ্ছুক প্রবাসী বাংলাদেশির প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, দূতাবাসের সাথে যোগাযোগ সাপেক্ষে কবরস্থানের সুবিধা নিতে পারবে মিসর প্রবাসী সকল বাংলাদেশি।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন