মালদ্বীপে বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে গেল মেডিক্যাল সরঞ্জাম, ফিরছে বাংলাদেশিরা

0

মালদ্বীপে করোনা রোগীদের চিকিৎসার জন্য গড়ে তোলা হচ্ছে একটি অত্যাধুনিক সুযোগ-সুবিধার হাসপাতাল ‘কোভিড ভিলেজ’। এই চিকিৎসা কেন্দ্রের নির্মাণে সহায়তায় হাত বাড়িয়েছে বাংলাদেশ। নির্মাণাধীন হাসপাতালের মেডিক্যাল সরঞ্জামের একটি চালান (শিপমেন্ট) মালদ্বীপ পৌঁছিয়ে দিয়েছে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা বাহক বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স।

সুত্রে জানা গেছে চীন থেকে মেডিকেল সরঞ্জামের চালান পরিবহনে সহায়তা দিয়ে বিমান বাংলাদেশ। বিষয়টি দায়িত্বশীল কোন কর্তৃপক্ষ থেকে নিশ্চিত করা যায়নি।

শনিবার সকালে বিমানের বিশেষ একটি ফ্লাইট হাসপাতালটির জন্য মেডিকেল সরঞ্জাম নিয়ে মালদ্বীপের ভেলেনা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌছায়।

ফিরতি ফ্লাইটে মালদ্বীপ থেকে স্বেচ্ছায় দেশে ফিরতে নিবন্ধিত অবৈধ প্রবাসী বাংলাদেশিদের দেশে নিয়ে আসা হচ্ছে। বিকাল ৫.০০ টায় ভেলেনা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে থেকে ৩৫৩ জন বাংলাদেশিকে নিয়ে বিমানের বিশেষ ফ্লাইটে ঢাকার উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছে বলে মালদ্বীপে বাংলাদেশ দূতাবাস নিশ্চিত করেছে।

ফ্লাইট রাতেই হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

দেশের পথে রওনা হতে মালদ্বীপের ভেলেনা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রবাসী বাংলাদেশিরা
দেশের পথে রওনা হতে মালদ্বীপের ভেলেনা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রবাসী বাংলাদেশিরা

মালদ্বীপের সূত্রে জানা গেছে, হুলহুমালে দ্বীপের ট্রি টপ হাসপাতালের সামনেই গড়ে উঠছে এই কোভিড ভিলেজ। দেশটিতে করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়ে যাওয়ায় অনেক রোগির উন্নত চিকিৎসার কথা মাথায় রেখে গড়ে উঠছে এই ভিলেজ। এতে থাকবে ৩০০ ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট শয্যাসহ করোনা রোগীদের জন্য সব ধরনের চিকিৎসার সুযোগ সুবিধা।

মালদ্বীপের ন্যাশনাল ইমার্জেন্সি অপারেশনস সেন্টারের তত্ত্বাবধানে গড়ে তোলা হচ্ছে এই ভিলেজ। এটি নির্মাণে ব্যয় করা হচ্ছে ৪০ মিলিয়ন মালদ্বীপ রুপিয়া। যার মধ্যে ১২ মিলিয়ন রুপিয়া খরচ হচ্ছে অবকাঠামো ব্যয়ে আর ২৮ মিলিয়ন খরচ হচ্ছে চিকিৎসা সরঞ্জাম এবং নানা ধরনের সরবরাহ ব্যয়ে।

এই প্রকল্পটি এপ্রিলে শেষ হওয়ার কথা থাকলেও নির্মাণের জড়িত অনেকের করোনা পজেটিভ আসায় পিছিয়ে যায় নির্মাণ কাজ। বর্তমানে এটি মে মাসের মধ্যে শেষ করার পরিকল্পনা করেছে মালদ্বীপ সরকার।

হাসপাতালের মেডিক্যাল সামগ্রীর চালান পরিবহনে সহযোগিতা করায় বিমান বাংলাদেশকে ধন্যবাদ জানিয়েছে মালদ্বিভিয়ান এয়ারলাইন্স।

মালদ্বীপে সপ্তাহ শেষে করোনা রোগির সংখ্যা ১ হাজার ছাড়িয়েছে। এখন পর্যন্ত মারা গেছে চারজন আর সুস্থ হয়েছেন ৪৯ জন।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Loading...