মালদ্বীপে অনিয়মিত বাংলাদেশিদের দ্রুত বৈধ হওয়ার আহবান

মাফুসি দ্বীপে মতবিনিময় সভায় হাইকমিশনার

0

মালদ্বীপে অনিয়মিত প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীদের দেশটির সরকারের দেওয়া সুযোগ নিয়ে দ্রুত বৈধ হওয়ার প্রচেষ্টা গ্রহণের আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশের হাইকমিশনার রিয়ার এডমিরাল এস এম আবুল কালাম আজাদ।

সম্প্রতি দেশটির অর্থনৈতিক উন্নয়নমন্ত্রী ইসমাইল ফাইয়াজের সঙ্গে বৈঠকের কথা উল্লেখ করে হাইকমিশনার বলেন, চলমান বিশেষ প্রোগ্রামের অধীনে নির্দিষ্ট মেয়াদকালের মধ্যে বৈধ না হলে প্রবাসী কর্মীদের বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নিবে মালদ্বীপ সরকার।

বৃহস্পতিবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাজধানী মালে থেকে ২৯ কিলোমিটার দক্ষিণে কাফু অ্যাটলে অবস্থিত মাফুসি দ্বীপের একটি বিদ্যালয়ের হলরুমে সেখানে বসবাসরত বাংলাদেশি কর্মীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন।

একই দিন মাফুসি কাউন্সিলের সঙ্গে সৌজন্য বৈঠক করেন এবং কারাগারে বন্দী বাংলাদেশিদের খোঁজ নেন হাইকমিশনের প্রতিনিধিদল। দ্বীপটিতে প্রায় ১০০০ বাংলাদেশি কর্মরত আছেন বলে হাইকমিশন অফিস সূত্র জানিয়েছে ।

মালদ্বীপের মাফুসি কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ও সদস্যদের সঙ্গে বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রতিনিধিদল।
মালদ্বীপের মাফুসি কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট ও সদস্যদের সঙ্গে বাংলাদেশ হাইকমিশনের প্রতিনিধিদল।

প্রবাসীদের সঙ্গে মতবিনিময় সভার শুরুতে হাইকমিশনের প্রথম সচিব মো. সোহেল পারভেজ বৈধপথে রেমিটেন্স পাঠানো, কল্যাণ বোর্ডের সদস্যপদ গ্রহণ, অনিয়মিত কর্মীদের বৈধকরণ, স্থানীয় আইন কানুন, স্বাস্থ্য সুরক্ষা এসব বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন। 

প্রবাসী কর্মীরা বাংলাদেশের বিমানবন্দরগুলোতে হয়রানি বন্ধ ও সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধিসহ বিভিন্ন মতামত দেন। 

হাইকমিশনার রিয়ার এডমিরাল এস এম আবুল কালাম আজাদ তাঁর বক্তব্যের শুরুতে দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে রেমিটেন্স যোদ্ধাদের গুরুত্বপূর্ণ অবদানের বিষয়ে উল্লেখ করেন।

তিনি বলেন, দেশের উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে রেমিট্যান্সযোদ্ধা প্রবাসীদের জন্য সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধি পাচ্ছে। 

আরও পড়তে পারেন : মালদ্বীপে বৈধ হওয়ার জোয়ার, নিয়মিত হয়েছেন ১৬ হাজার বাংলাদেশি কর্মী

হাইকমিশনার অনিয়মিত কর্মীদের দ্রুত বৈধ হওয়ার প্রচেষ্টায় কমিশনের পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সহায়তার আশ্বাস দেন। তিনি প্রবাসী বাংলাদেশিদের নিজ স্বাস্থ্য সুরক্ষা, বৈধপথে রেমিটেন্স প্রেরণ ও স্থানীয় আইন কানুন মেনে চলার অনুরোধ জানান।

সভায়, হাইকমিশনের কল্যাণ সহকারী আল মামুন পাঠান প্রবাসীদের মধ্যে তথ্যসমৃদ্ধ লিফলেট বিতরণ করেন।

মাফুসি কাউন্সিলের সঙ্গে বৈঠকে মাফুসির প্রবাসী বাংলাদেশি কর্মীদের বিভিন্ন সুযোগ সুবিধা যেমন-স্বাস্থ্য সেবা, বিনোদন,  খেলাধুলা, বৈধকরণ ইত্যাদি ও মাফুসির উন্নয়নে সহযোগিতার বিষয়ে আলোচনা হয়।

আরও পড়তে পারেন : মালদ্বীপের কারাগারে বন্দী বাংলাদেশিদের খোঁজ নিল হাইকমিশন

মাফুসি কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট হাসান সোলাহ বাংলাদেশি কর্মীদের দক্ষতা ও কর্তব্য নিষ্ঠার প্রশাংসা করে সম্ভাব্য সব ধরনের সহায়তার আশ্বাস দেন।

এর আগে হাইকমিশনার ও প্রতিনিধি দল মাাফুসি কারাগারে বাংলাদেশি বন্দীদের সঙ্গে দেখা করে তাদের সমস্যা ও সুযোগসুবিধার খবর নেন। পরে কারাগার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠকে বাংলাদেশি বন্দীদের প্রাপ্য সুযোগ-সুবিধা যথাযথভাবে দেওয়ার অনুরোধ জানান হাইকমিশনার।

আকাশযাত্রার ফেসবুক পেইজ যুক্ত হতে চাইলে এখানে ক্লিক করার অনুরোধ

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন