মহাকাশে সিমেনার শুটিং করতে গেলেন রুশ অভিনেত্রী

0

মহাকাশে সিনেমার শুটিংয়েও যুক্তরাষ্ট্রের সঙ্গে টক্কর দিতে চাইছে দেশটির প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী রাশিয়া। তাই তো পৃথিবীর বাইরে প্রথম কোনো সিনেমার দৃশ্যায়নের জন্য আজ মঙ্গলবার আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে গেলেন রাশিয়ার এক অভিনেত্রী ও পরিচালক।

যে দুজন মহাকাশ স্টেশনে গেছেন, তাঁরা হলেন অভিনেত্রী ইউলিয়া পেরেসিল্দ (৩৭) ও পরিচালক ক্লিম শিপেঙ্কো (৩৮)। মহাকাশ স্টেশনে পৌঁছাতে তাঁরা দুজন আজ বাংলাদেশ সময় বেলা তিনটার দিকে কাজাখস্তানের বাইকনুর কসমোড্রোম থেকে যাত্রা শুরু করেন। তাঁদের বহনকারী মহাকাশযানটি সন্ধ্যা ৬টা ১২ মিনিটে মহাকাশ স্টেশনে পৌঁছায় বলে জানানো হয়েছে।

হলিউডের একটি প্রকল্পের অংশ হিসেবে মহাকাশে একটি সিনেমার শুটিং করার কথা গত বছর ঘোষণা করে যুক্তরাষ্ট্রের মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা। ‘মিশন ইম্পসিবল’ সিরিজের সিনেমার শুটিংয়ের জন্য জনপ্রিয় মার্কিন অভিনেতা টম ক্রুজকে মহাকাশে পাঠানোর কথাও জানানো হয়েছিল। এ জন্য নাসা ও ধনকুবের ইলন মাস্কের স্পেস–এক্স একসঙ্গে কাজ করছে। সেই প্রকল্পকে পরাস্ত করতেই রাশিয়ার এই পদক্ষেপ বলে মনে করা হচ্ছে।

রাশিয়ার এই দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন মহাকাশচারী আন্তন শাকপ্লেরভ। ১২ দিনের এই মিশনে তাঁরা মহাকাশযান সোয়ুজ এমএস–১৯–এ করে ঘুরবেন। মহাকাশে তাঁরা যে সিনেমার শুটিং করবেন, তার নাম দ্য চ্যালেঞ্জ।

রাশিয়ার মহাকাশ গবেষণা সংস্থা রসকমোসের মাধ্যমে সম্প্রচার করা বক্তব্যে ইউলিয়া পেরেসিল্দ বলেছেন, ‘আমার জন্য মহাকাশ একটি আকর্ষণীয় স্থান। সেখানে কোনো সীমান্ত নেই। সিনেমার চরিত্রের জন্য তিন হাজার ব্যক্তির মধ্যে আমাকে বাছাই করা হয়েছে।’

মহাকাশচারী শাকপ্লেরভ বলেছেন, ‘শুধু সিনেমা বানানোই আমাদের লক্ষ্য নয়, আমাদের জীবিত পৃথিবীতে ফিরে আসাও দরকার।’ ইউলিয়া ও শিপেঙ্কো ১৭ অক্টোবর পৃথিবীতে ফিরে আসবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন