বাংলাদেশ-ব্রাজিলের বাণিজ্যিক সর্ম্পক বাড়াতে চান রাষ্ট্রদূত সাদিয়া ফয়জুননেসা

0

ব্রাজিলের রাষ্ট্রদূত হিসেবে পদোন্নতিপ্রাপ্ত নিউইয়র্কের কন্সাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা বলেছেন, ‘বাংলাদেশের ঘরে ঘরে ব্রাজিলের পতাকা ওড়ে-এ বিষয়টি ব্রাজিলিয়ানদের পরিপূর্ণভাবে অবহিত করার মাধ্যমে বাংলাদেশের সাথে ব্রাজিল তথা দক্ষিণ আমেরিকার বাণিজ্যিক সম্পর্ক নিবিড় করার ব্রত নিয়ে ব্রাসিলিয়া যাচ্ছি। ব্রাজিলে বাংলাদেশের পণ্যের চাহিদা প্রচুর। সেই লক্ষ্যে দু’দেশের মধ্যকার বাণিজ্যিক যোগাযোগের পরিধিকে গতানুগতিক ধারা ধেকে গভীরতর করতে হবে। এ ব্যাপারে বাংলাদেশি আমেরিকানদেরও অপরিসীম ভূমিকা রাখতে হবে।

নিউইয়র্কে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রদত্ত ‘বিদায়ী সংবর্ধনা সমাবেশে’ তিনি একথা বলেছেন। সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম এবং বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের যুক্তরাষ্ট্র শাখার যৌথ উদ্যোগে জ্যাকসন হাইটসে মুনলাইট গ্রীল রেস্টুরেন্টের মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত এ সংবর্ধনা সমাবেশের আয়োজন করা হয়।

নিউইয়র্কে প্রথম মহিলা এবং পঞ্চদশতম কন্সাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা আগামী শুক্রবার নতুন কর্মস্থলের উদ্দেশে রওয়ানা দেবেন। বিসিএস অস্টাদশতম ব্যাচের (ফরেন সার্ভিস) মেধাবী অফিসার সাদিয়া হবেন দক্ষিণ ব্রাজিল তথা দক্ষিণ আমেরিকাতেও প্রথম মহিলা রাষ্ট্রদূত।

নিউইয়র্কে কর্মকালে সর্বস্তরের প্রবাসীদের প্রিয় ব্যক্তিত্বে পরিণত হয়েছিলেন তিনি। পাশাপাশি বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সাথেও চমৎকার একটি সম্পর্ক গড়তে সক্ষম হয়েছেন। বিশেষ করে করোনা মহামারিকালে তার সর্বাত্মক চিকিৎসা-পরামর্শ (ব্যক্তিগতভাবে এমবিবিএস ডাক্তার হিসেবে) প্রবীণ প্রবাসীদের বিশেষভাবে উপকার করেছে। বাংলাদেশ সোসাইটির সেবামূলক কাজকর্মেও সাদিয়ার সহযোগিতার কথা কারো অজানা নেই।

তিনি বলেন, দীর্ঘ সোয়া তিন বছর নিউইয়র্কে দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে ব্যবসায়ী, আমদানিকারক এবং বিভিন্ন ক্ষেত্রে প্রচণ্ড মেধাবী বাংলাদেশিগণের সাথে গড়ে উঠা সম্পর্ককে ব্রাজিল-বাংলাদেশের দ্বি-পাক্ষিক সম্পর্কের উন্নয়নে ব্যবহার করবো।’

জাতির জনকের খুনি হিসেবে দণ্ডিত রাশেদ চৌধুরীকে দেশে ফেরাতে বাংলাদেশি আমেরিকানদের গণস্বাক্ষর অভিযানের আহবান জানিয়ে রাষ্ট্রদূত সাদিয়া বলেন, ‌‘৫০ হাজার স্বাক্ষর যদি সংগ্রহ করার পর তা হোয়াইট হাউজে জমা দেওয়া দরকার। আমরা কূটনৈতিক চ্যানেলে দেন-দরবার অব্যাহত রেখেছি। সিটিজেনশিপ গ্রহণকারিরা আবেদন জানালে তা প্রশাসনের দৃষ্টি এড়াবে না।’

সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা রাশেদ আহমেদের সভাপতিত্বে এবং বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কমিউনিকেশন্স পরিচালক বীর মুক্তিযোদ্ধা লাবলু আনসারের সঞ্চালনায় রাষ্ট্রদূত সাদিয়া ফয়জুননেসার কর্মজীবনের উত্তরোত্তর সাফল্য কামনা করে আরও বক্তব্য দেন সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের কেন্দ্রীয় মহাসচিব লেখক-সাংবাদিক বীর মুক্তিযোদ্ধা হারুন হাবীব, যুক্তরাষ্ট্র শাখার সেক্রেটারি বীর মুক্তিযোদ্ধা রেজাউল বারি, বাংলাদেশ লিবারেশন ওয়ার ভেটারন্স ইউএসএর প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফা খান মিরাজ এবং বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের অন্যতম সহ-সভাপতি রানা ফেরদৌস চৌধুরী।

বিশেষ সম্মানীত অতিথি লেখক-সাংবাদিক হারুন হাবীব বলেছেন, জ্যাকসন হাইটের আজকের আয়োজনটি ছিল ব্যতিক্রমী; কারণ, এটি ছিল প্রবাসের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের পক্ষ থেকে একজন প্রবল দেশপ্রেমী ও সার্থক নারী কূটনীতিককে বিদায় জানাতে। ব্রাজিলসহ দক্ষিণ আমেরিকার কয়েকটি দেশে বাংলাদেশের নতুন রাষ্ট্রদূত হয়েছেন নিউইয়র্কের কনসাল জেনারেল সাদিয়া ফয়জুননেসা। এই যোগ্য নারী কূটনীতিক নিউইয়র্কের মতো বাঙালি অধ্যুষিত গুরুত্বপূর্ণ আমেরিকান অঞ্চলের দায়িত্ব নিয়েছিলেন তিন বছর আগে বড় চ্যালেঞ্জ নিয়ে, সে চ্যালেঞ্জে তিনি বিজয়ী হয়েছেন, প্রমাণ করেছেন সাহসী, স্পষ্টবাদী ও প্রথা বিরোধী একজন কূটনীতিক প্রবাসীদের কতটা কাছের মানুষ হতে পারেন, বিশেষ করে দেশের বীর মুক্তিযোদ্ধাদের কাছে। নতুন কূটনৈতিক দায়িত্বে তিনি সফল হবেন, এই আশাবাদ আমার।

কন্সাল জেনারেল হিসেবে কমিউনিটি সার্ভিসে অসামান্য অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে সাদিয়া ফয়জুননেসাকে আয়োজক সংগঠনের পক্ষ থেকে বিশেষ সম্মাননা ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। এছাড়া সেক্টর কমান্ডারস ফোরাম এবং বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান, নিলুফা শিরিন, মাহমুদা বাশার, সবিতা দাস এবং নাজিমউদ্দিন।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত বীর মুক্তিযোদ্ধাগণের মধ্যে ছিলেন আবুল বাশার চুন্নু, মোহাম্মদ ফারুক হোসেন, খুরশেদ আনোয়ার বাবলু, এনামুল হক, আব্দুর রহমান, শহীদ হাসান, গুলজার হোসেন, বিল্লাল হোসেন, নাজিমউদ্দিন, নূরল ইসলাম, এমদাদুল হক, আবুল বাশার ভূইয়া, মকবুল হোসেন তালুকদার, মিজানুর রহমান চৌধুরী, রুহুল আমিন ভূইয়া, আশরাফ আলী, এম এ আওয়াল, জাকির হোসেন হিরু। মুক্তিযোদ্ধা সন্তান কমান্ডের আহবায়ক আশরাব আলী খান লিটন ছাড়াও ছিলেন বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশনের কর্মকর্তা নাজিম উদ্দিন, সেক্টর কমান্ডারস ফোরামের কর্মকর্তা ড. রফিক আহমেদ, মহিলা সম্পাদিকা সবিতা দাস, কাজী মোস্তফা, আলাউদ্দিন, আবু তাহের, আবুল হাসেম প্রমুখ।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন