বাংলাদেশ এবং মালদ্বীপের মধ্যে প্রথমবারের মত দ্বিপাক্ষিক সংলাপ

0

বাংলাদেশ এবং মালদ্বীপের মধ্যে প্রথমবারের মত আনুষ্ঠানিক দ্বিপাক্ষিক সংলাপ (Bilateral Consultation) অনুষ্ঠিত হয়েছে। চলতি বছরের মার্চ মাসে দুই দেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত ‘সমঝোতা স্মারক’ অধীনে এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন বাংলাদেশ সরকারের একটি উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধি দল নিয়ে মালদ্বীপে দুই দিনের সরকারি সফরে রয়েছেন।

শনিবার (২৭ নভেম্বর) রাজধানী মালেতে অনুষ্ঠিত বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন এবং মালদ্বীপের পক্ষে দেশটির পররাষ্ট্র সচিব আবদুল গফুর মোহাম্মদ নেতৃত্ব দেন।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত সংলাপে বাংলাদেশ ও মালদ্বীপের মধ্যে পারস্পরিক যোগাযোগ বৃদ্ধি এবং সম্পর্কের উন্নয়নসহ প্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য কল্যাণকর বিভিন্ন বিষয় স্থান পায়।

মালদ্বীপের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আহমেদ খলিলের সঙ্গে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনের একান্ত বৈঠক।
মালদ্বীপের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আহমেদ খলিলের সঙ্গে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনের একান্ত বৈঠক।

তারা, উভয় পররাষ্ট্র সচিব মালদ্বীপ এবং বাংলাদেশের মধ্যে ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের দীর্ঘ ইতিহাসের প্রতি প্রতিফলন করেছেন, যা সাম্প্রতিক মাসগুলিতে অনেক উচ্চ স্তরে উন্নীত হয়েছে। তারা দুই দেশের মধ্যে সহযোগিতার পুরো বর্ণালী পর্যালোচনা করেন এবং মালদ্বীপ ও বাংলাদেশের মধ্যে বহুমুখী সম্পর্ক জোরদার ও গভীর করার বিষয়ে আলোচনা করেন।

তাদের আলোচনায় সম্প্রতি মালদ্বীপ ও বাংলাদেশের মধ্যে স্বাক্ষরিত চুক্তির বাস্তবায়ন ত্বরান্বিত করা এবং অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ মুলতুবি চুক্তির সমাপ্তি ত্বরান্বিত করার ওপর বিশেষ জোর দেওয়া হয়। আলোচনার অন্য ক্ষেত্রগুলির মধ্যে ছিল জলবায়ু পরিবর্তন, সংস্কৃতি, মৎস্য ও কৃষিতে সহযোগিতা।

দুই দেশের মধ্যে ক্রমবর্ধমান সংযোগ ও দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যের কথা তুলে ধরেন পররাষ্ট্র সচিব মোমেন।

মালদ্বীপের পররাষ্ট্র সচিব গফুর উচ্চ শিক্ষা এবং মানবসম্পদ উন্নয়ন, প্রশিক্ষণ ও সক্ষমতা বৃদ্ধিতে সহযোগিতার গুরুত্ব উল্লেখ করেছেন, বিশেষ করে মালদ্বীপের স্বাস্থ্য খাতের জন্য।

মালদ্বীপের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আহমেদ খলিলের সঙ্গে পরে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনের একান্ত বৈঠক।
মালদ্বীপের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আহমেদ খলিলের সঙ্গে পরে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেনের একান্ত বৈঠক।

তিনি কোভিড-১৯ মহামারী চলাকালীন মালদ্বীপের সরকার ও জনগণের প্রতি অব্যাহত সমর্থন ও অঙ্গীকারের জন্য বাংলাদেশ সরকারের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

সংলাপে পররাষ্ট্র সচিবের সঙ্গে ছিলেন পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব (পূর্ব) শফি বিনতে শামস ও মালদ্বীপে নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ নাজমুল হাসান এবং প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। বাংলাদেশ প্রতিনিধি দলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ছাড়াও প্রবাসী কল্যাণ ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তারা রয়েছেন।

পরে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন মালদ্বীপের পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আহমেদ খলিলের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এসময় তারা পারস্পরিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন এবং দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক আরও জোরদার করার প্রতিশ্রুতি দেন।

পররাষ্ট্র সচিব বাংলাদেশ হাইকমিশন পরিদর্শন করেন এবং সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন।  এর আগে মালদ্বীপে পৌঁছালে বিমানবন্দরে স্বাগত জানায় মালদ্বীপের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ হাইকমিশনের উর্ধ্বতন কর্মকতারা।
পররাষ্ট্র সচিব বাংলাদেশ হাইকমিশন পরিদর্শন করেন এবং সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন। এর আগে মালদ্বীপে পৌঁছালে বিমানবন্দরে স্বাগত জানায় মালদ্বীপের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও বাংলাদেশ হাইকমিশনের উর্ধ্বতন কর্মকতারা।

পররাষ্ট্র সচিব বাংলাদেশ হাইকমিশন পরিদর্শন করেন এবং তার সম্মানে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে যোগ দেন। অনুষ্ঠানে মালদ্বীপ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা এবং প্রবাসী বাংলাদেশি কমিউনিটি সংগঠকরা উপস্থিত ছিলেন।

আজ রবিবার পররাষ্ট্র সচিব মালদ্বীপের ভাইস প্রেসিডেন্ট ফয়সাল নাসিম ও অর্থনৈতিক উন্নয়ন মন্ত্রী ফাইয়াজ ইসমাইল সাথেও সাক্ষাত করবেন বলে আশা করা হচ্ছে।

মালদ্বীপের পররাষ্ট্র সচিব আবদুল গফুর মোহাম্মদের আমন্ত্রণে বাংলাদেশের পররাষ্ট্র সচিব মাসুদ বিন মোমেন দুই দিনের সফরে শুক্রবার মালদ্বীপে পৌঁছালে ভেলানা আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে স্বাগত জানায় বাংলাদেশ হাইকমিশনার রিয়ার এডমিরাল মোহাম্মদ নাজমুল হাসান এবং মালদ্বীপ পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের চিফ অফ প্রটোকল আইশাথ শান শাকির এবং যুগ্ম সচিব ফাথিমাথ ঘিনা।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন