প্রবাসে করোনায় ১৯৭২ বাংলাদেশির মৃত্যু, সর্বোচ্চ সৌদিতে

জিসিসিভুক্ত ছয় দেশেই মারা গেছেন ১২৮৩ জন

0

বিশ্বের ২১টি দেশে এখন পর্যন্ত করোনায় ১ হাজার ৯৭২ প্রবাসী বাংলাদেশির মারা গেছেন। এরমধ্যে মধ্যপ্রাচ্যের জিসিসিভুক্ত ছয় দেশেই মারা গেছেন ১ হাজার ২৮৩ জন বাংলাদেশি আর ইউরোপ-আমেরিকাসহ ১৫ দেশে ৬৮৯ জন বাংলাদেশি করোনায় মারা গেছেন।

দেশগুলোর বাংলাদেশ দূতাবাস ও কমিউনিটি সংগঠনগুলো থেকে পাওয়া তথ্যে নিয়ে করা প্রথম আলোর এক প্রতিবেদনে এমন পরিসংখ্যান ওঠে এসেছে।

জিসিসিভুক্ত ছয় দেশের সৌদি আরবে সবচেয়ে বেশি ৮৫০ জন প্রবাসী বাংলাদেশি করোনায় মারা গেছেন। এরপরে সংযুক্ত আরব আমিরাতে ১৯৮ জন, কুয়েতে ১০৩ জন, ওমানে ৭০ জন, কাতারে ৩৫ জন ও বাহরাইনে ২৭ জন বাংলাদেশি করোনাভাইরাসের সংক্রমণে মারা গেছেন।

দেশগুলোর দূতাবাসের কর্মকর্তারা জানান, করোনাভাইরাসে মারা যাওয়া প্রবাসী বাংলাদেশিদের বেশিরভাগই হৃদ্‌রোগ, উচ্চ রক্তচাপ, ডায়াবেটিস, কিডনি রোগসহ নানা শারীরিক জটিলতায় ভুগছিলেন। হাসপাতালে ভর্তির পর তাঁদের অনেকের করোনা শনাক্ত হয়।

অন্যদিকে যুক্তরাজ্যে ৩৪০ জন, যুক্তরাষ্ট্রে ২৯২, ইতালিতে ১৬, কানাডায় ৯, সুইডেনে ৮, ফ্রান্সে ৭, স্পেনে ৫, বেলজিয়ামে ৩ জন, পর্তুগাল ও দক্ষিণ আফ্রিকায় ২ জন করে এবং ভারত, মালদ্বীপ, কেনিয়া, লিবিয়া ও গাম্বিয়ায় ১ জন করে বাংলাদেশি মারা গেছেন।

ওয়ার্ল্ডোমিটারসের গতকালের তথ্য অনুযায়ী, সৌদি আরবে এ পর্যন্ত মারা গেছেন ৫ হাজার ২৯৬ জন (৮৫০ জন বাংলাদেশি),সংযুক্ত আরব আমিরাতে মৃত্যু ৪৭৭ জন (১৯৮ জন বাংলাদেশি), ওমানে মারা গেছেন ১ হাজার ১৭৪ জন (৭০ জন বাংলাদেশি)।

অন্যদিকে ইউরোপের দেশগুলো বিশেষ করে ইতালি, স্পেনে করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ শুরুর সঙ্গে সঙ্গে সেসব দেশে প্রবাসী বাংলাদেশিদের মধ্যেও সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে।গত দুই মাসে প্রবাসীদের মৃত্যুর সংখ্যা কমলেও সংক্রমণের হারটা এখন খুব বেশি বলে স্থানীয় কমিউনিটি সূত্র জানিয়েছে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।