পর্তুগালে বাংলাদেশ ও ভারতের স্বাধীনতা উদযাপনে যৌথ অনুষ্ঠান

0

পর্তুগালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর এবং ভারতের স্বাধীনতার ৭৫ বছর উদযাপন উপলক্ষে দুদেশের যৌথ উদ্যোগে বর্ণাঢ্য অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

শনিবার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকালে স্থানীয় একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের হলরুমে বাংলাদেশ দূতাবাস এবং ভারতীয় দূতাবাসের সহযোগিতায় কালারস অব ইনডিপেনডেন্স শিরোনামে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে কমিউনিটি সংগঠন ভূমি।

অনুষ্ঠানে পর্তুগালে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত তারিক আহসান এবং ভারতের রাষ্ট্রদূত মনিশ চৌহান বিশেষ অতিথি ছিলেন। এছাড়া দুই দেশের কমিউনিটি ও সাংস্কৃতিক সংগঠক এবং কমিউনিটির বিভিন্ন স্তরেরপ্রতিনিধ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে দুদেশের স্বাধীনতা এবং তার পরবর্তী সময়ে বিভিন্ন খাতে অগ্রগতি ওপর প্রামাণ্য চিত্র প্রদশর্ন করা হয়।

এ ছাড়া অনুষ্ঠানে দুদেশের শিল্পীরা সংগীত এবং নাচ গানের মাধ্যমে নিজ দেশের সংস্কৃতি তুলে ধরেন।

এ ধরণের উদ্যোগ দু’দেশের পারস্পারিক সম্পর্কের ক্ষেত্রে মাইলফলক উল্লেখ করে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত তারিক আহসান বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে ভারত সরকারের সহযোগিতার কথা আমরা কোনো দিনও ভুলবো না। স্বাধীনতা পরবর্তী বাংলাদেশেও নানাভাবে সহযোগিতা করেছে ভারত সরকার।

তিনি স্বাধীনতা পরবর্তী বাংলাদেশের বিভিন্ন খাতে অভাবনীয় সাফল্যের কথা উল্লেখ করেন।

ভারত বাংলাদেশের অকৃত্রিম বন্ধু উল্লেখ করে ভারতীয় রাষ্ট্রদূত মনিশ চৌহান বলেন, সংস্কৃতিগত মেলবন্ধনের কারণে ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে যে সুসম্পর্ক বিদ্যমান, তা ভবিষ্যতেও অটুট থাকবে। বাংলাদেশ এখন সব ক্ষেত্রেই ভালো করছে। তাই বাংলাদেশের সাফল্যে ভারত গর্ববোধ করে। আগামীতেও ভারত সরকার বাংলাদেশের পাশে থেকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে।

পর্তুগালে করোনা পরিস্থিতি অনেকটাই স্বাভাবিকের পথে, তাই এসময় এমন মনোমুগ্ধকর আয়োজনে দুই দেশের প্রবাসীরা উচ্ছ্বসিত হন।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন