নারীর প্রতি সহমর্মিতায় কেবিন ক্রু পেলেন জাতিসংঘের সম্মাননা

0

মাঝ আকাশে উড়োজাহাজে একটি শিশু অনবরত কান্না করছিল। শিশুটির কান্নায় অতিষ্ঠ তার মা। কোনোমতেই শিশুটিকে থামাতে পারছিলেন না। এমন পরিস্থিতিতে এগিয়ে আসেন একজন কেবিন ক্রু, পরম আদরে কোলে নিয়ে শিশুটিকে ঘুম পাড়িয়ে দেন। স্বস্তির নিঃশ্বাস ছাড়েন শিশুটির মা, বিমান ভ্রমণ হয় আরামদায়ক।

নারীর প্রতি এমন ‘সহমর্মিতা’ দেখানোয় পাকিস্তান ইন্টারন্যাশনাল এয়ারলাইনসের (পিআইএ) কেবিন ক্রু তৌহিদ দাউদপোতাকে ‘হি ফর শি’ সম্মাননা দিয়েছে জাতিসংঘের ‘উইমেন পাকিস্তান’।

পিআইএর পক্ষ থেকে ভিডিওসহ টুইটে বলা হয়, নারীর প্রতি সহমর্মিতা, লিঙ্গ সংবেদনশীলতা, নারীর প্রতি সম্মান ও যত্নশীল হওয়ার জন্য জাতিসংঘ কেবিন ক্রু তৌহিদকে ‘হি ফর শি’ চ্যাম্পিয়ন ঘোষণা করেছে। শিশুকে শান্ত করতে ব্যস্ত তৌহিদের ছবিটি সম্প্রতি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে।

জিও টিভির অনলাইনে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়, গত সপ্তাহে পিআইএর ক্রু তৌহিদ ফ্লাইট চলাকালীন এক শিশুকে শান্ত করার ছবি ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়েছে। তবে ইন্টারনেটে ছড়িয়ে পড়া ছবিটি কে তুলেছে, তা জানা যায়নি।

টুইটারে নিজের এক বন্ধুর শেয়ার করা ওই ছবিটি পাকিস্তানের সংগীতশিল্পী ফখর-ই-আলম নিজের পেজ থেকে শেয়ার করে লেখেন, ‘ইসলামাবাদ থেকে করাচিগামী পিআইএর একটি ফ্লাইটে থাকা এক বন্ধু ছবিটি গতকাল শেয়ার করেছেন। একটি শিশু অনবরত কান্না করছিল। শিশুটির কান্নায় অতিষ্ঠ তার মা। কোনোমতেই শিশুটিকে থামাতে পারছিলেন না। মি. তৌহিদ এসে শিশুটিকে কোলে নিয়ে ঘুম পাড়ান। সত্যিকারভাবেই এখন মহান কিছু মানুষের সঙ্গে ফ্লাইটে যাওয়া যাবে।’

টুইটারও এই সদয় আচরণের প্রশংসা করে বিভিন্ন উড়োজাহাজের ক্রুদের এমন ঘটনার ছবি শেয়ার করেছে।

পাকিস্তানের জাতীয় পতাকাবাহী এয়ারলাইনস সম্প্রতি নানা কেলেঙ্কারির কারণে খবরের শিরোনাম হচ্ছে। পিআইএর বিরুদ্ধে অব্যবস্থাপনা, ভুয়া লাইসেন্সধারী পাইলট নিয়োগসহ বেশ কিছু অভিযোগ উঠেছে। এর মধ্যে তৌহিদ দাউদপোতার ঘটনাটি কিছুটা হলেও আশার সঞ্চার করেছে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন