তিন লাখ নতুন অভিবাসী কর্মীর জন্য প্রস্তুত মালয়েশিয়া

0
Travelion – Mobile

তিন লাখেরও বেশি নতুন অভিবাসী কর্মীকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত মালয়েশিয়া। আগামী কয়েক মাসে পর্যায়ক্রমে নতুন বিদেশি কর্মীরা বৈধ ওয়ার্ক পারমিটে দেশটিতে প্রবেশ করবেন।

এমনটি জানিয়েছেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের (স্পেশাল ওয়ার্ক) বিভাগের মন্ত্রী দাতুক আবদুল লতিফ আহমেদ। মঙ্গলবার (২২ মার্চ) নাদমা এবং ইমেডএশিয়ার মধ্যকার সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরের পরে এক সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান তিনি।

তিনি বলেছেন, অভিবাসী কর্মীদের কল্যাণ ও নিরাপত্তা নিশ্চিতে সরকারের একটি সংগঠিত স্ক্রিনিং ব্যবস্থা থাকা অপরিহার্য যাতে কোভিড -১৯ পরীক্ষা করা এবং কর্মীদের সাত দিনের কোয়ারেন্টিন সময়কালে তাদের আগমনের সময় অন্তর্ভুক্ত করা হয়।

মার্সিং এমপি ঘোষণা করেছেন যে, হং সেং কনসোলিডেটেড বিএইচডি, ইমেডএশিয়াÑএর একটি সহায়ক সংস্থাকে এই উদ্দেশ্যে জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা সংস্থার (নাদমা) জাতীয় নিরাপত্তা এবং বিদেশী কর্মীদের নিয়োগ এবং কোয়ারেন্টাইন ম্যানেজমেন্ট প্রোগ্রামের পাশাপাশি কাজ করার জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে।

amar lab – mobile

বিভিন্ন দেশ থেকে আসা অভিবাসী শ্রমিকদের বাধ্যতামূলক কোয়ারেন্টিনের সময় দেশব্যাপী ৪০০টি হোটেল রাখা হবে।

প্রসঙ্গত, গত বছরের ১০ ডিসেম্বর অনুমোদিত খাতে অভিবাসী শ্রমিকদের নিয়োগের বিষয়ে সম্মত হয়েছিল মালয়েশিয়ার মন্ত্রিসভা । ১৯ ডিসেম্বর মালয়েশিয়া বাংলাদেশি কর্মী নিয়োগের বিষয়ে বাংলাদেশের সাথে একটি এমওইউ স্বাক্ষর করেছেন মানবসম্পদ মন্ত্রী দাতুক সেরি এম গারাভানান; যা ২০২৬ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত পাঁচ বছরের জন্য কার্যকর হবে।

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ১৫ ফেব্রুয়ারি থেকে ১৬ মার্চ পর্যন্ত অভিবাসী কর্মীদের নিয়োগের জন্য বিভিন্ন সেক্টরে নিয়োগ কর্তাদের কাছ থেকে মোট ৩১৩,০১৪টি আবেদন জমা পড়েছে এবং পর্যায়ক্রমে এ গুলো প্রক্রিয়া করা হচ্ছে ।

প্রাপ্ত আবেদনগুলোর মধ্যে উৎপাদন খাতে ১৯৩,৩৪৬, পরিষেবা খাতে ৪৮,১১৯, বৃক্ষরোপণ খাতে ৩৬,৯৫০, নির্মাণ খাতে ২৭,৩৩১, কৃষি খাতে ৭,২৪৮ এবং খনি ও খনন খাতে ২০ জন রয়েছে বলে সূত্রে জানা গেছে ।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন