জর্ডানে শেখ রাসেল দিবসে ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতার আয়োজন

0

জর্ডানে প্রবাসী বাংলাদেশি শিশু-কিশোরদের ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতার আয়োজনের মাধ্যমে শেখ রাসেল দিবস ২০২১ উদযাপন করা হয়েছে। শহিদ শেখ রাসেলের স্মৃতিকে নতুন প্রজন্মের মাঝে ছড়িয়ে দেয়ার জন্য বাংলাদেশ দূতাবাস আম্মানের উদ্যোগে এই প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান তাঁর বক্তব্যে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও তাঁর পরিবারের সকল সদস্যদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে জর্ডানের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে উপস্থিত হওয়া সকল সন্মানিত অতিথি ও দর্শকবৃন্দ ও সাংবাদিকবৃন্দকে অনুষ্ঠানে স্বাগত জানান।

তিনি বলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান তাঁর পরিবারের নতুন কনিষ্ঠ সদস্যের তাঁর প্রিয় লেখক খ্যাতিমান দার্শনিক ও নোবেল বিজয়ী ব্যক্তিত্ব বার্ট্রান্ড রাসেলের নামানুসারে নাম রাখেন ‘রাসেল’। তাঁর সপ্ন ছিল একদিন এই শিশুটি দার্শনিক রাসেলের মত মহৎ ও জ্ঞানের অধিকারী হিসেবে বড় হবে।

রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, শেখ রাসেলের ভুবন ছিল তাঁর পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও মাতা শেখ ফজিলাতুননেসা মুজিব, বোন শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা এবং ভাই শেখ কামাল ও শেখ জামালকে ঘিরে। ঘাতকের নির্মমতা একটি ছোট শিশু, শেখ রাসেলকেও অকালে প্রান দিতে হল। শেখ রাসেলের হত্যা বর্বরতা ও অমানবিকতার এক পৈশাচিক উদাহরণ।

জর্ডানে শেখ রাসেল দিবসে ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতার বিজয়ী প্রবাসী শিশু-কিশোরদের সঙ্গে রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান
জর্ডানে শেখ রাসেল দিবসে ব্যাডমিন্টন প্রতিযোগিতার বিজয়ী প্রবাসী শিশু-কিশোরদের সঙ্গে রাষ্ট্রদূত নাহিদা সোবহান

তিনি সকলকে নতুন প্রজন্মের কাছে শিশু শেখ রাসেলের স্মৃতিকে তুলে ধরার আহ্বান জানািয়ে বলেন, নতুন প্রজম্নের প্রতিটি শিশুর মধ্য দিয়েই শেখ রাসেল বাংলাদেশের ইতিহাসের অবিচ্ছেদ্য অংশ হিসেবে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকবে।

প্রতিযোগিতা শেষে অংশগ্রহণকারী প্রতিযোগীদের সকলকে সনদ ও সন্মাননা স্বারক এবং বিজয়ী দলকে পুরস্কৃত করা হয়।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন