ছয় বছরে ভূমধ্যসাগরে ডুবে মারা গেছে ২০ হাজার শরণার্থী

0

২০১৪ সাল থেকে ভূমধ্যসাগর পাড়ি দিতে গিয়ে অন্তত ২০ হাজার লিবিয়ান শরণার্থী মারা গেছে বলে জানিয়েছে জাতিসংঘের অভিবাসন সংস্থা-আইওএম।

শুক্রবার এক বিবৃতিতে আইওএম জানায়, লিবিয়া ও সাম্প্রতিক কিছু সামুদ্রিক দূর্ঘটনায় গেল ছয় বছরে মৃতের সংখ্যা “নির্মম মাত্রায়” গিয়ে দাঁড়িয়েছে।

সংস্থাটির পক্ষে এর মুখপাত্র পল ডিলন লিবিয়ার শরণার্থীদের নিয়ে এই তথ্য তুলে ধরেন।

তিনি এমন সাম্প্রতিক কয়েকটি দূর্ঘটনার কথা জানাতে গিয়ে ৯ ফেব্রুয়ারি লিবিয়ার গারাবুলি থেকে ছেড়ে আসা একটি ডিঙি নৌকা থেকে নিখোঁজ ৯১ জন ও ১৪ ফেব্রুয়ারি আলজেরিয়া থেকে আসা একটি জাহাজের নিখোঁজ হওয়ার কথা তুলে ধরেন।

তিনি উল্লেখ করেন, ২০১৬ সাল থেকে প্রতিবছর বাৎসরিক মৃতের সংখ্যা কমেছে। এর আগে প্রতি বছর ভূমধ্যসাগরী পার হতে গিয়ে ৫ হাজার প্রাণ যেত।

এসব শরণার্থীদের ব্যাপারে সংস্থাটির অবস্থান নিশ্চিত করে পল ডিলন বলেন, আমরা চাই শরণার্থী ও অভিবাসিদের জন্য নিরাপদ ও বৈধ পথ নিশ্চিত করাটা আমাদের লক্ষ্য। আমরা চাই অবৈধ পথে পাড়ি দিয়ে অপ্রয়োজনীয় ও অর্থহীন মৃত্যুর সংখ্যা কমিয়ে আনতে। তাই আমরা এক্ষেত্রে আমাদের সহায়তার হাত বাড়াতে চাই।

এ প্রসঙ্গে আইওএম-এর গ্লোবাল মাইগ্রেশন ডেটা অ্যানালিসিস সেন্টারের ডিরেক্টর ফ্রাঙ্ক ল্যাজকো জানান, “আইওএম এসব ভেবে খুবই মর্মাহত হয় যখন ‘ভুতুড়ে নৌকা’ বা অদৃশ্য জাহাজডুবির সংবাদগুলো আমরা পাই। এসব সংবাদ সাধারণত বেসরকারি সংস্থাগুলোর কাছে আসে যখন সমুদ্রে বিপদে পড়ে সাহায্য চেয়ে তাদের কাছে ফোন আসে। এসব ক্ষেত্রে প্রায়শই দেখা যায়, দুই-তৃতীয়াংশ ক্ষেত্রে কোন নিশানা ছাড়াই মানুষ নিঁখোজ হয়ে যায়।”

তিনি আরও বলেন, এই নির্মম সত্যগুলো আমাদের অবস্থানকে আরো দৃঢ় করেছে। কারণ আমরা আহ্বান জানিয়ে আসছি ভূমধ্যসাগরীয় এলাকায় নিঁখোজ ও বিপদে পড়া শরণার্থীদের অনুসন্ধান ও উদ্ধারে আরো জোরালো ও কার্যকর পদক্ষেপ নেয়া জরুরি।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Loading...