চট্টগ্রাম-শারজাহ ফ্লাইট শুরু করলো এয়ার এরাবিয়া

0

এবার চট্টগ্রাম শাহ আমানত আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজাহতে যাত্রীবাহি ফ্লাইট পরিচালনা শুরু করেছে শারজাহভিত্তিক বিমান সংস্থা এয়ার এরাবিয়া। সোমবার বিকালে চট্টগ্রাম বিমানবন্দর থেকে প্রথম ফ্লাইট শারজাহ’র উদ্দেশ্যে রওনা দেয়। প্রাথমিকভাবে সপ্তাহে দুটি ফ্লাইট চলবে; আগামী সপ্তাহ থেকে চট্টগ্রাম-আবুধাবি রুটেও যাত্রী পরিবহন শুরু করছে বিমান সংস্থাটি।

কিন্তু ফ্লাইট চলাচল শুরু করলেও ট্রাভেল এজেন্সি ছাড়া কেউ জানে না। ফলে প্রবাসী এবং সাধারন যাত্রীরা ফ্লাইট চালু নিয়ে দ্বিধান্বিত হয়েছেন। ট্রাভেল এজেন্সি বলছে ফ্লাইট আছে কিন্তু যাত্রীরা কোনভাবেই বিশ^াস করতে পারছে না। এই দোলাচলের মধ্যেই প্রথম ফ্লাইটটি চট্টগ্রাম ছাড়লো।

এর আগে ২ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম থেকে দুবাই রুটে সরাসরি যাত্রী পরিবহন শুরু করে রাষ্ট্রায়ত্ত্ব বিমান সংস্থা বাংলাদেশ বিমান। ৭ সেপ্টেম্বর শারজাহ রুটে যাত্রী পরিবহন শুরু করলো এয়ার এরাবিয়া। আগামী ১০ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম-দুবাই রুটে সরাসরি যাত্রী পরিবহন শুরু করছে দুবাইভিত্তিক বিমান সংস্থা ফ্লাই দুবাই। এরমধ্য দিয়ে চট্টগ্রাম বিমানবন্দর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের তিনটি গন্তব্যে ভ্রমনের দুয়ার খুলছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে এয়ার এরাবিয়ার এক শীর্ষ কর্মকর্তা আকাশযাত্রাকে বলেন, গণমাধ্যমে আনুষ্ঠানিক কথা বলার জন্য আমাদের শারজাহ’র কেন্দ্রীয় অফিস থেকে অনুমতি নিতে হয়। তবে এটা ঠিক সোমবার চট্টগ্রাম থেকে কভিড-১৯ পরবর্তী আমাদের বিমান চলাচল শুরু হয়েছে। অবশ্য ঢাকা থেকে শুরু হয়েছে জুলাই মাসের শেষদিক থেকে।

তিনি বলছেন, এই সপ্তাহে আমরা সপ্তাহের সোমবার ও বুধবার দুটি ফ্লাইট চালাবো চট্টগ্রাম-শারজাহ রুটে। আগামী সপ্তাহে দুটি ফ্লাইটে চট্টগ্রাম-আবুধাবি রুটে সরাসরি যাত্রী পরিবহন শুরু হবে। এরপর যাত্রী চাহিদা বাড়লে আমরা প্রতিদিন চট্টগ্রাম-শারজাহ রুটে যাত্রী পরিবহন করবো।

তিনি বলছেন, যাত্রা শুরু উপলক্ষে আমরা খুব একটা প্রচারনা চালাইনি। শুধুমাত্র ট্রাভেল এজেন্সিগুলো ফ্লাইট চালানোর বিষয়টি জানে। এজন্য সাধারন যাত্রীরা খুব একটা জানে না।
বাংলাদেশে কভিড-১৯ মহামারি শুরুর পর চট্টগ্রাম বিমানবন্দর থেকে গত ২১ মার্চ সর্বশেষ ফ্লাইট চালিয়েছিল এয়ার এরাবিয়া। তখন চট্টগ্রাম-শারজাহ রুটে দিনে দুটি করে সপ্তাহে ১৪টি ফ্লাইট পরিচালনা করেছিল। বিমান কর্তৃপক্ষ আশা করছে ধীরে ধীরে যাত্রী বাড়লে আমরা আগের অবস্থায় ফিরবো।

জানতে চাইলে গালফ ট্রাভেলসের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও হজ এজেন্সিস এসোসিয়েশন চট্টগ্রাম চেয়ারম্যান শাহ আলম আকাশযাত্রাকে বলেন, আমরা ট্রাভেল এজেন্সিরা জানলেও প্রচারনা না থাকায় যাত্রীরা সেটি বিশ^াসই করতে চাইছে না। এরপরও ফ্লাইট চলাচল শুরু হওয়াটা ইতিবাচক কিন্তু বিজনেস পার্টনারদের সাথে এয়ারলাইনসের সমন্বয়টা বাড়ানো জরুরি। তাইলে ভালো যাত্রী সাড়া মিলবে।

আগের খবর :
১০ সেপ্টেম্বর থেকে চট্টগ্রাম-দুবাই রুটে ফ্লাই দুবাই’র নিয়মিত ফ্লাইট
বুধবার থেকে চট্টগ্রাম-দুবাই রুটে বিমানের সরাসরি ফ্লাইট শুরু
সোমবার থেকে আবুধাবি রুটে বাংলাদেশ বিমানের নিয়মিত ফ্লাইট আবার শুরু

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।