গ্রিসে বাংলাদেশ দূতাবাসে শেখ রাসেল দিবস উদযাপন

0

বাংলাদেশ দূতাবাস এথেন্সে ‘শেখ রাসেল দীপ্ত জয়োল্লাস, অদম্য আত্মবিশ্বাস’ এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্যদিয়ে উদযাপিত হলো শেখ রাসেল দিবস।

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠ পুত্র শহীদ শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে রাষ্ট্রদূত ও তার সহধর্মিনী রেবেকা সুলতানা দূতাবাসের পরিবারসহ প্রবাসী শিশু-কিশোরদের সাথে নিয়ে কেক কাটেন।

এ উপলক্ষে দূতাবাসে শহীদ শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করেন গ্রিসে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ।

এ সময় গ্রিসে বসবাসকারী বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক, সাংস্কৃতিক, ব্যবসায়ী এবং আঞ্চলিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, নতুন প্রজন্মের শিশু-কিশোররা এবং দূতাবাসের সকল কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সর্বস্তরের প্রবাসী বাংলাদেশিরা উপস্থিত ছিলেন।

শহীদ শেখ রাসেল দিবস উপলক্ষে আয়োজিত বিশেষ আলোচনা অনুষ্ঠানের আগে দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত বাণীসমূহ পাঠ করে শোনানো হয় এবং ক্ষণজন্মা শহীদ শেখ রাসেলের জীবন নিয়ে নির্মিত ভিডিও চিত্র প্রদর্শন করা হয়।

আয়োজিত আলোচনা পর্বে বক্তারা শহীদ শেখ রাসেলের জীবনের বিভিন্ন দিক তুলে ধরেন।

রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ শেখ রাসেলের কথা স্মরণ করে বলেন, সদা হাস্যোজ্জ্বল শেখ রাসেল ছিলেন নিষ্পাপ শিশু। ৭৫’এর ঘাতকরা তাকেও রেহাই দেয়নি। আজ তিনি বেঁচে থাকলে, আমরা হয়তো একজন দূরদর্শী ও আদর্শ নেতা পেতাম।

এ সময় বক্তারাও শেখ রাসেলের শৈশব স্মৃতির কথা স্মরণ করেন এবং তার মধ্যে লুকায়িত অসীম সম্ভাবনা আগামীর শিশুদের মধ্যে প্রতিভাত হবে বলে আশা প্রকাশ করেন।

অনুষ্ঠানে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, শহীদ শেখ রাসেলসহ তার পরিবারের অন্যান্য শহীদ সদস্যদের আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং বিশ্বব্যাপী করোনা মহামারী থেকে বাংলাদেশের মানুষ, প্রবাসী বাংলাদেশিসহ বিশ্বমানবতার মুক্তি কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করা হয়।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন