গ্রিসে বাংলাদেশ দূতাবাসে রন্ধনশিল্প প্রশিক্ষণ কোর্স

0

গ্রিসের অর্থনীতি মূলত তিনটি সেক্টরের ওপর নির্ভরশীল—তৈরি পোশাকশিল্প, কৃষি খাত এবং রেস্তোরাঁ খাত। এর মধ্যে রেস্টুরেন্ট খাতে দক্ষ কর্মীর চাহিদা সবচেয়ে বেশি। প্রতিবছর গ্রিসের মোট জনসংখ্যার চেয়ে বেশি পর্যটক গ্রিসে আসেন। এই বিপুলসংখ্যক পর্যটকের খাবারের জোগান দিতে দক্ষ জনশক্তি প্রয়োজন।

বাংলাদেশ থেকে বৈধ পথে দক্ষ জনশক্তি আমদানির সুযোগ এখনো পর্যন্ত সৃষ্টি হয়নি; তাই এই খাতে স্থানীয় প্রবাসী বাংলাদেশিদের যোগ্যতা প্রমাণের যথেষ্ট সুযোগ রয়েছে; কিন্তু গ্রিসে বসবাসরত বাংলাদেশিদের রেস্তোরাঁয় কাজের ক্ষেত্রে পর্যাপ্ত দক্ষতা ও সুযোগ না থাকায় তাঁরা সঠিক মর্যাদা ও বেতন পাচ্ছেন না। সেই অভাব পূরণের লক্ষ্যেই গ্রিসপ্রবাসী বাংলাদেশিদের জন্য প্রথমবারের মতো রন্ধনশিল্পের ওপর মৌলিক প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্যোগ নিয়েছে এথেন্সের বাংলাদেশ দূতাবাস।

১৭ সেপ্টেম্বর ভিডিও কনফারেন্সিংয়ের মাধ্যমে এই কোর্সের উদ্বোধন করেন প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থানমন্ত্রী ইমরান আহমদ। আরও অংশ নেন মন্ত্রণালয়ের সচিব আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন। উপস্থিত ছিলেন গ্রিসে নবনিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ।

দূতাবাসের সার্বিক তত্ত্বাবধান ও গ্রিসের শীর্ষস্থানীয় প্রশিক্ষণ প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ইয়েক ডেল্টার সহায়তায় রন্ধনশিল্পের প্রশিক্ষণ কোর্সের প্রথম ব্যাচে অংশ নিয়েছেন গ্রিসপ্রবাসী ১৫ জন বাংলাদেশি তরুণ-তরুণী।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানেমন্ত্রী ইমরান আহমেদ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ‘সোনার বাংলা’ বিনির্মাণে প্রবাসীদের সার্বিক কল্যাণ নিশ্চিতকরণে প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

প্রশিক্ষণার্থীদের সঙ্গে গ্রিসে নবনিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ
প্রশিক্ষণার্থীদের সঙ্গে গ্রিসে নবনিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ

তিনি বাংলাদেশ দূতাবাসকে প্রথমবারের মতো প্রবাসে এ ধরনের উদ্যোগ গ্রহণ এবং ইয়েক ডেল্টাকে সার্বিক সহযোগিতার জন্য আন্তরিক ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, বাংলাদেশিদের দক্ষতা বৃদ্ধির মাধ্যমে কর্মসংস্থান সৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি করার পাশাপাশি এই উদ্যোগ মুজিববর্ষে বাংলাদেশ সরকারের প্রবাসবান্ধব কার্যক্রম প্রধানমন্ত্রীর ভিশন ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়নে একটি মাইলফলক হিসেবেও কাজ করবে।

এই প্রয়াস অব্যাহত রাখার পাশাপাশি এর কলেবর বৃদ্ধির ঘোষণাও দিয়ে মন্ত্রী প্রশিক্ষণ কার্যক্রম নিয়মিত পর্যবেক্ষণ ও তত্ত্বাবধায়নের ওপর গুরুত্বারোপ করেন এবং রন্ধনশিল্পে নিবিড় ও সামগ্রিক প্রশিক্ষণ প্রদানের উদ্যোগ গ্রহণের বিষয়ে নির্দেশনাও প্রদান করেন পাশাপাশি পর্যটনশিল্পের বিভিন্ন শাখায় এ ধরনের প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা নেওয়ার পরামর্শ দেন।

সচিব আহমেদ মুনিরুছ সালেহীন বলেন, প্রবাসী বাংলাদেশিরা রেমিট্যান্সযোদ্ধা হিসেবে সব সময় দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছেন। প্রবাসীকল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয় নিরাপদ, সুশৃঙ্খল এবং নিয়মিত অভিবাসনের জন্য বাংলাদেশি কর্মীদের দক্ষতা উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে। প্রবাসীদের সার্বিক কল্যাণ ও কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে মন্ত্রণালয়ের মুজিব বর্ষের প্রতিপাদ্য বিষয় হচ্ছে দক্ষতা উন্নয়ন। তিনি প্রশিক্ষণার্থীদের কল্যাণে প্রদত্ত সব সেবার নিশ্চয়তা প্রদান করে গৃহীত কার্যক্রমের জন্য দূতাবাসকে ধন্যবাদ জানান।

রাষ্ট্রদূত আসুদ আহমেদ বলেন, প্রবাসীদের শান্তি ও সমৃদ্ধি বর্তমান সরকারের লক্ষ্য। তাঁদের নিরাপদ ও উন্নত জীবনযাত্রা ত্বরান্বিত করবে বাংলাদেশের উন্নয়ন। এই বাস্তবতায় নেওয়া এই প্রশিক্ষণ কার্যক্রমেরমাধ্যমে গ্রিসে প্রবাসী বাংলাদেশিদের আর্থিক ও সামাজিক অবস্থান আরও সুদৃঢ় হবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

 রন্ধনশিল্প প্রশিক্ষণ কোর্স
রন্ধনশিল্প প্রশিক্ষণ কোর্স

রাষ্ট্রদূত প্রশিক্ষণার্থীদের গ্রিসে জীবিকার জন্য অক্লান্ত পরিশ্রমের পাশাপাশি সর্বদা বাংলাদেশের সুনাম ও মর্যাদা অক্ষুণ্ন রাখার পরামর্শ দেন। অদূর ভবিষ্যতে তাঁদের মাধ্যমেই গ্রিকদের সঙ্গে সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক সৃষ্টি হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

তিনি প্রবাসীদের দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য এ ধরনের আয়োজনের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার প্রতিশ্রুতি প্রদান করায় মন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানান। আয়োজন সংশ্লিষ্ট ইয়েক ডেল্টা ট্রেনিং ইনস্টিটিউটের প্রতি আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের সঞ্চালক দূতাবাসের কাউন্সেলর (শ্রম) সৈয়দা ফারহানা নূর চৌধুরী জানান, এই প্রশিক্ষণ কোর্স একটি চলমান প্রক্রিয়া। পরবর্তী সময়ে দূতাবাসের তত্ত্বাবধানে আরও ৫টি ব্যাচে মোট ৯০ জনকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন দূতাবাসের কাউন্সেলর (রাজনৈতিক) মোহাম্মদ খালেদ ।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।