কাতার রুটে ফ্লাইট বাতিল বাংলাদেশি বিমানসংস্থাগুলোর

বাংলাদেশসহ ১৪ দেশের নাগরিকদের প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা

0

বাংলাদেশসহ ১৪ দেশের নাগরিকদের কাতারে প্রবেশের ক্ষেত্রে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করার পরিপ্রেক্ষিতে দোহা রুটে চলাচলকারী দেশীয় বিমান সংস্থাগুলোর নিয়মিত ফ্লাইট স্থগিত করা হচ্ছে।

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স ও ইউএস বাংলা এয়ারলাইন্সের আজকের ফ্লাইট এবং রিজেন্ট এয়ারওয়েজের আগামীকালের ফ্লাইট বাতিল ঘোষণা করা হয়েছে।

অন্যদিকে বাংলাদেশ রুটে চলাচলকারী কাতারের জাতীয় বিমানসংস্থা কাতার এয়ারওয়েজের ফ্লাইট চলাচল এখনও পর্যন্ত অব্যাহত থাকলেও কাতারগামী বাংলাদেশিদের অফলোড করা হচ্ছে।

দেশীয় বিমানসংস্থাগুলোর সূত্র জানা গেছে, ঢাকা ও চট্টগ্রাম থেকে কাতারের রাজধানী দোহা রুটে রাষ্ট্রায়ত্ব বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এবং বেসরকারি ইউএস- বাংলা এয়াররাইন্সের আজ সোমবারের নির্ধারিত ফ্লাইট বাতিল করা হয়েছে।

বিকেল ৫ টা ০৫ টায় বিমান বাংলাদেশের বিজি ২৫ এবং ৫ টা ৪৫ মিনিটে ইউএস বাংলার বি এস ৩৩৩ উড়ার এবং দোহা থেকে ফিরতি ফ্লাইট হিসেবে দেশে আসার কথা ছিল ।

অন্যদিকে বেসরকারি বিমানসংস্থা রিজেন্ট এয়ারওয়েজের আগামীকালের ঢাকা-চট্টগ্রাম-দোহা রুটের আর এক্স ৭৫৩ ফ্লাইটটি বাতিল করেছে বলে করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে দায়িত্বশীল কর্মকর্তা ।

বাংলাদশের এই তিনটি বিমানসংস্থা সপ্তাহে ৪ দিন ঢাকা-দোহা-ঢাকা রুটে চলাচল করে। পরিস্থিতি বিবেচনায় পরবর্তী ফ্লাইটগুলোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে জানিয়েছেন বিমানসংস্থাগুলোর দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা।

হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমান বন্দরের দায়িত্বরত কাতার এয়ারওয়েজেরএক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, সরকারী নিষেধাজ্ঞার কারণে আজ ভোরে ঢাক-দোহা রুটের ফ্লাইটে কাতারগামী যাত্রীদের অফলোড করা হয়। শুধুমাত্র ট্রানজিট যাত্রী নিয়ে ফ্লাইট দুটি দোহায় রওনা হয় ভোর ৪.২০, ৫.৫০ এবং সকাল ১০.৩০ টার ফ্লাইট তিনটি।

বিকেলে ৫. ৫০ মিনিটের বাকি ফ্লাইটেও এ ব্যবস্থা নেওয়া হবে এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া কাতার-ঢাকা-কাতার রুটে চলাচলকারী ৪ টি ফ্লাইটে শুধুমাত্র দোহাগামী বাংলাদেশি যাত্রী আর বহন করা হবে না।

গতকাল রবিবার কাতার সরকার বাংলাদেশসহ ১৪ দেশের নাগরিকদের কাতারে প্রবেশের ক্ষেত্রে সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে কর্তৃপক্ষ। এ সব দেশের প্রবাসী এবং পর্যটক আপাতত কাতারে প্রবেশ করতে পারবেন না ।

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার শঙ্কার সতর্কতা হিসেবে এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে কাতার।

কাতারের সরকারী যোগাযোগ অফিস (জিসিও) বিবৃতিতে বলা হয়েছে, নিষেধাজ্ঞার আওতায় থাকা দেশগুলো হলো- চীন, মিশর, ভারত, ইরান, ইরাক, লেবানন, বাংলাদেশ, নেপাল, পাকিস্তান, ফিলিপিন্স, দক্ষিণ কোরিয়া, শ্রিলংকা, সিরিয়া এবং থাইল্যান্ড।

কাতার এয়ারওয়েজ ইতিমধ্যে ইতালির সঙ্গে সব ফ্লাইট চলাচল বন্ধ করে দিয়েছে। এ ছাড়া চীনের বেশ কিছু বিমানবন্দরের সঙ্গে কাতারের বিমান যোগাযোগ আপাতত বন্ধ।

কাতারেও রোববার আরও তিনজন নতুন রোগী ধরা পড়েছে। সব মিলিয়ে মধ্যপ্রাচ্যের এই দেশটিতে ১৫ জন এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন বলে আল অ্যারাবিয়ার এক প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Loading...