ওমানে দুই শিশুকে নতুন জীবন দিয়েছে একজন মৃত মানুষ

0
Travelion – Mobile

ওমানের রাজধানী মাস্কাটের রয়্যাল হাসপাতালে সম্প্রতি দুই ওমানি শিশুর কিডনি প্রতিস্থাপনে সফল হয়েছে, যাদের কিডনি বিকল ছিল। দুরার এবং আসিল নামের এই দুই শিশুকে নতুন জীবন দিতে একজন মৃত ব্যক্তি তার কিডনি দান করেছেন।

দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এই তথ্য প্রকাশ করাে বলা হয়েছে, চিকিৎসকরা মৃত্যু নিশ্চিত করার পর মৃতে ব্যক্তির শেষ ইচ্ছা অনুযায়ী তার পরিবার কিডনি দানের আবেদন জমা দেয়।

ওমান টিভিতে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে দুরারের মা সালিমা সালেম আল সাদি বলেন,“আমার মেয়ে ছয় বছর ধরে ভুগছিল। আমরা মহান আল্লাহতায়লা এবং সেই ব্যক্তির পরিবারকে ধন্যবাদ জানাই যিনি কিডনি দান করেছেন।”

সালিমা জানান যে, দুরারের কিডনি প্রতিস্থাপনের পর, তার ওষুধ উল্লেখযোগ্যভাবে হ্রাস পেয়েছে এবং তার মেয়ে শারীরিক ও মানসিকভাবে শক্তিশালী।

আসিলের বাবা আবদুল্লাহ সালেহ আল বালুশির মতে, তার সন্তানের গত আট বছর ধরে কিডনির সমস্যা রয়েছে। “প্রতিস্থাপন সফল হয়েছে এবং আমরা আল্লাহতায়লার প্রতি শুকরিয়া জানাই যে, আমাদের কষ্ট দূর করার জন্য একজন দাতা খুঁজে পেয়েছি।”

amar lab – mobile

মঙ্গলবার কিডনি দানকারী মৃত ব্যক্তির পরিবারের সাথে দেখা করেছেন ওমানের স্বাস্থ্যমন্ত্রী ড. আহমেদ আল সাইদি। গত সপ্তাহে হাসপাতাল থেকে ছাড়ার আগে কিডনি পাওয়া শিশুদেরও দেখতে যান তিনি।

রয়্যাল হাসপাতালের পেডিয়াট্রিক নেফ্রোলজির সিনিয়র কনসালট্যান্ট এবং অঙ্গ প্রতিস্থাপন বিভাগের প্রধান ডা. নেভেন বিনতে ইব্রাহিম আল কালবানি জানিয়েছেন যে, এই জাতীয় পদ্ধতিগুলি জাতীয় অঙ্গ প্রতিস্থাপন কর্মসূচির অংশ।

ডা. নেভেন বলেন, “প্রোগ্রামে রোগীদের চিকিৎসাগতভাবে যোগ্য দাতা খুঁজে তাদের জীবন পুনরুদ্ধার করতে সাহায্য করার জন্য সুলতানের বেশ কয়েকটি হাসপাতালের প্রচেষ্টা জড়িত।”

রয়্যাল হাসপাতালের সিনিয়র নেফ্রোলজি কনসালট্যান্ট ড. মোহাম্মদ আল রিয়ামি মানুষকে অঙ্গ দান করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, “আমাদের অনেক শিশু আছে যাদের জীবন বাঁচাতে অঙ্গের প্রয়োজন।”

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের ডেটা অনুসারে, বর্তমানে সালতানাতে প্রায় ২,৫০০ রোগী কিডনি বিকলে হেমোডায়ালাইসিসে এবং ২০০ রোগী প্রোটন ডায়ালাইসিসে রয়েছেন। ১৩ বছরের কম বয়সী ৫০ জন শিশু কোনো না কোনো ধরনের ডায়ালাইসিসে রয়েছে।

আল শিফা অ্যাপের মাধ্যমে কিডনিসহ যে কোন অঙ্গদানের অনুরোধ করা যাবে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন