ইউরোপ থেকে কাউকে আর বাংলাদেশে ঢুকতে দেয়া হবে না

0

আগামীকাল (সোমবার) দুপুরের পর থেকে ইউরোপের কোনো যাত্রীকে (যুক্তরাজ্য বাদে) বাংলাদেশে ঢুকতে দেয়া হবে না বলে জানিয়েছে বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক)।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে এমন ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে জানিয়ে বেবিচক বলেছে, সোমবার দুপুরের পর ইউরোপের কোনো যাত্রী এলে তাদের ফেরত পাঠানো হবে।

রবিবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে বেবিচক চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল এম মফিদুর রহমান বলেন, সোমবার দুপুর ১২টা থেকে যুক্তরাজ্য ছাড়া ইউরোপের অন্য কোনো দেশ থেকে কোনো যাত্রী বাংলাদেশ গ্রহণ করবে না।

তিনি বলেন, এক্ষেত্রে এয়ারলাইন্সগুলো যদি এসব দেশের যাত্রী নিয়ে আসেন, তাহলে তারা নিজ খরচে আবার ফেরত নেবেন।

শনিবার (১৪ মার্চ) রাতে এক ঘোষণায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন জানান, আগামী ৩১ মার্চ পর্যন্ত ইউরোপ ও করোনা আক্রান্ত দেশগুলো থেকে বাংলাদেশে কেউ আসতে পারবেন না। এছাড়া বাংলাদেশ সব ধরনের অন-অ্যারাইভাল ভিসা বন্ধের ঘোষণা দেন তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন বলেন, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ইউরোপকে করোনাভাইরাসের জন্য সবচেয়ে বেশি ঝুঁকিপূর্ণ বলেছে। তাই এই ভাইরাস থেকে দেশবাসীকে রক্ষার জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্দেশ দিয়েছেন, ব্রিটেন ছাড়া ইউরোপের বাকি দেশগুলোর সঙ্গে ১৬ মার্চ, রাত ১২টা ১ মিনিট থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত সময়ে কোনো উড়োজাহাজ চলবে না। তবে বাণিজ্যিক কার্যক্রম ঠিক রাখতে পণ্যবাহী কার্গো বা কুরিয়ার পরিবহন চালু থাকবে।

তিনি আরও বলেন, এরই মধ্যে আমাদের এখানে পাঁচ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছে, তাদের মধ্যে অবশ্য তিন জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। কিন্তু এই পাঁচ জন আক্রান্তের মধ্যে তিন জন বিদেশ ফেরত। তাই আমরা ঝুঁকি নিতে চাই না বলে ইউরোপের সঙ্গে উড়োজাহাজ যোগাযোগ আপাতত বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. আবদুল মোমেন বলেন, যেসব দেশ বাংলাদেশের সঙ্গে উড়োজাহাজ যোগাযোগ বন্ধ রেখেছে বা বাংলাদেশকে ভিসা দেওয়া বন্ধ রেখেছে, বাংলাদেশও সেসব দেশের সঙ্গে একই ব্যবস্থা কার্যকর করেছে। এতে নেপাল, ভারত, সৌদি আরব, কাতার, কুয়েতের সঙ্গে আপাতত উড়োজাহাজ যোগাযোগ বন্ধ থাকবে।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Loading...