আমিরাতে ‘শেকড়ের খোঁজে’র আত্মপ্রকাশ

সভাপতি গুলশান, সম্পাদক মাসুম

0

সংযুক্ত আরব আমিরাতে সংস্কৃতিমনা একঝাঁক তারুণ্যেকে নিয়ে সাবেক সেনা কর্মকর্তা ও নারী উদ্যোক্তা কাজী গুলশান আরার নেতৃত্বে যাত্রা শুরু করলো ‘শেকড়ের খোঁজে’ নামে একটি সংগঠন।

শনিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) ৫৫ জন সদস্য নিয়ে সংগঠনটি আনুষ্ঠানিকভাবে আত্মপ্রকাশ করে। কাজী গুলশান আরাকে সভাপতি ও সংগীত শিল্পী জাবেদ আহমেদ মাসুমকে সাধারণ সম্পাদক করে ১৭ সদস্যের একটি কার্যকরী পরিষদ গঠন করা হয়েছে।

কমিটিতে আরও রয়েছেন সহ-সভাপতি বেলায়েত হিরু, সহ-সভাপতি অনিন্দিতা খান সুমি, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এনামুল কবির রবিন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সামিদা চৌধুরী পপি, সাংগঠনিক সম্পাদক মামুন রেজা, যুগ্ম সাংগঠনিক সম্পাদক আরিফা নুশরাত, সাংস্কৃতিক সম্পাদক সৈয়দ আরিফ, যুগ্ম সাংস্কৃতিক সম্পাদক লুৎফর রশীদ রাসেল, যুগ্ম সাংস্কৃতিক সম্পাদক আশিকুর রহমান, দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক সামসুদ্দিন ফারুক সুমন, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক মাকসুদা খানম, যুগ্ম শিক্ষা সম্পাদক নাজনীন আক্তার, যুগ্ম শিক্ষা সম্পাদক আলী মোকাদ্দেস, প্রচার সম্পাদক সামসুদ্দিন ফারুক সুমন ও দপ্তর সম্পাদক সারোয়ার জামান জাবেদ।

সংগঠনের আত্মপ্রকাশ সম্পর্কে সভাপতি কাজী গুলশান আরা বলেন, শেকড়ের খোঁজে শুধুমাত্র নাচ, গান বা আবৃত্তির কোন সংগঠন নয়। এটি যোগসূত্র তৈরি করবে বিশ্বের একপ্রান্ত থেকে অন্যপ্রান্তে ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা বাঙালিদের মাঝে। বাঙালি সংস্কৃতি, ইতিহাস ও সভ্যতাকে পৌঁছে দেবে এ প্রজন্মের দোরগোড়ায়।

তিনি আরও বলেন, বিচ্ছিন্নভাবে আমরা দীর্ঘদিন বিভিন্ন সংগঠনের হয়ে কাজ করে আসছিলাম। সেগুলোর বেশিভাগই কেন্দ্রীয় পরিষদ থাকে অন্য দেশে। তাই আমরা নিজস্বতা আনতে এবার শেকড়ের খোঁজে’র মাধ্যমে একটি প্লাটফর্ম তৈরি করেছি। সমাজের জন্য এবং সমষ্টিগতভাবে দেশের জন্য কিছু করার ইচ্ছা থেকেই এই সংগঠনের সূচনা। সংস্কৃতি চর্চার পাশাপাশি শিক্ষা এবং শিশুদের বিকাশের জন্য আমরা সরাসরি কাজ করতে চাই।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।