আমিরাতের রাষ্ট্রপতির পদক পেলেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ইমরান

0

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ‘দ্য মেডেল অব ইন্ডিপেন্ডেন্স অব দ্য ফার্স্ট অর্ডার’ অর্জন করেছেন দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের সদ্য বিদায়ী রাষ্ট্রদূত মুহাম্মদ ইমরান।

আমিরাতের রাষ্ট্রপতি শেখ খলিফা বিন জায়েদ আল নাহিয়ান রাষ্ট্রীয় এ দূর্লভ সম্মানে ভূষিত করেন বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূতকে।

দেশটির সরকারি বার্তা সংস্থার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাংলাদেশের মধ্যে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক ও সহযোগিতা প্রসারিত করার জন্য সব ক্ষেত্রে রাষ্ট্রদূত ইমরান যে প্রচেষ্টা চালিয়েছেন তার স্বীকৃতিস্বরূপ তাঁকে এ পদকে ভূষিত করেছেন আমিরাতের রাষ্ট্রপতি।

বুধবার স্থানীয় সময় সন্ধ্যায় দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ আবদুল্লাহ বিন যায়েদ আল নাহিয়ান তার মন্ত্রণালয়ের দপ্তরে এক অনাড়ম্বর আনুষ্ঠানিকতার মধ্য দিয়ে রাষ্ট্রপতির পক্ষ থেকে মোহাম্মদ ইমরানের কাছে এ পদক হস্তান্তর করেন।

মন্ত্রী রাষ্ট্রদূতের শুভকামনা ও সাফল্য কামনা করেন এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাংলাদেশের মধ্যে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক উন্নয়নে সকল ক্ষেত্রে তার ভূমিকার প্রশংসা করেন।

রাষ্ট্রদূত ইমরান আমিরাতের রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানান এবং তাঁর বিজ্ঞ নীতি এবং এ অঞ্চল ও আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে তিনি যে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করেছেন তাঁর প্রশংসা করেন।

রাষ্ট্রদূত দু’দেশের মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নের জন্য সংযুক্ত আরব আমিরাতের পররাষ্ট্র মন্ত্রাণালয়সহ সকল সরকারী দফতরকে সহযোগিতার করার জন্য ধন্যবাদ জানায়।

রাষ্ট্রদূতের এমন দূলর্ভ সম্মান অর্জনের খবরে আমিরাতের বাংলাদেশি কমিউনিটির মাঝে আনন্দের বন্যা বনে যায়। কমিউনিটি নেতাদের অভিমত, আমিরাতের রাষ্ট্রপতি থেকে এমন অর্জনে তাঁর রাষ্ট্রদূত মোহাম্মদ ইমরান যেমন যোগ্য সম্মান পেলেন তেমনি বাংলাদেশের সুনাম অনেক বেড়ে গেছে নিঃসন্দেহে।

প্রসঙ্গত, মোহাম্মদ ইমরান পূর্ণ সচিব পদমর্যাদায় নয়াদিল্লীতে বাংলাদেশের হাই কমিশনার হিসেবে নিযুক্ত হয়েছেন।

ভিডিও দেখুন :

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

Loading...