আগরতলা-চট্টগ্রাম সরাসরি বাস চালুর প্রস্তাব

0
Travelion – Mobile

ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের রাজধানী আগরতলা থেকে বাংলাদেশের বাণিজ্যিক রাজধানী চট্টগ্রামের মধ্যে সরাসরি বাস সার্ভিস চালুর প্রস্তাব দিয়েছে বাংলাদেশের ট্যুর অপারেটররা।

আজ মঙ্গলবার ত্রিপুরার পর্যটনবিষয়ক মন্ত্রী প্রণজিৎ সিংহ রায় গণমাধ্যমকে এ তথ্য জানিয়েছেন।

প্রণজিৎ সিংহ বলেছেন, ‘আমরা প্রস্তাবটির বিষয়ে কাজ করছি। ভারত সরকার অনুমোদন দিলে এটি সম্ভব হবে। বাংলাদেশের ট্যুর অপারেটরদেরও তাদের সরকারের মাধ্যমে প্রস্তাবটি উত্থাপন করতে বলা হয়েছে।’

তিনি আরও বলেন, ‘ত্রিপুরার পর্যটকরা তাদের অতীত স্মরণ করতে চট্টগ্রাম যেতে আগ্রহী।’

মন্ত্রী জানান, ২০১৯ সালে প্রায় ১ লাখ ২০ হাজার মানুষ ত্রিপুরার পর্যটনকেন্দ্রগুলোতে ভ্রমণ করেছেন। তাদের মধ্যে ৮০ শতাংশই ছিলেন বাংলাদেশের নাগরিক।

amar lab – mobile

কোভিড-১৯ মহামারির কারণে ২ বছর বন্ধ থাকার পর কলকাতা-ঢাকা-আগরতলা পথে বাস সার্ভিস আবার চালু হয়েছে। খুব শিগগিরই এ রুটে আরেকটি বাস চালু করা হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

সিংহ রায় বলেন, ‘ভারত-বাংলাদেশ পর্যটন উৎসবের দ্বিতীয় ধাপে প্রতিবেশী দেশে পর্যটন চালুর জন্য রাজ্যের পর্যটন বিভাগ এবং বাংলাদেশের ট্যুর অপারেটরদের মধ্যে একটি সমঝোতা স্মারক স্বাক্ষরিত হবে।’

আগামী ১৭ এপ্রিল থেকে ৩ দিনব্যাপী ট্যুরিজম ইভেন্ট শুরু হবে এবং বাংলাদেশ থেকে ৭৫ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল উপস্থিত থাকবেন বলে জানা গেছে।

বাংলাদেশ দলে ট্যুর অপারেটরস, হোটেল মালিক, সাংস্কৃতিক কর্মী, বুদ্ধিজীবী ও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বরা থাকবেন বলে জানা গেছে।

পশ্চিমবঙ্গ এবং আসামের ট্যুর অপারেটররাও বাংলাদেশ-ভারত পর্যটন উৎসবে অংশ নেবেন। ত্রিপুরার মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেব উৎসবের উদ্বোধন করবেন।

২০২০ সালে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশ-ভারত পার্যটন উৎসবের আয়োজন করা হয়। তবে গত বছর কোভিড মহামারির কারণে উৎসব অনুষ্ঠিত হয়নি।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন