অস্ট্রেলিয়ায় ৩ জনের ওমিক্রন শনাক্ত

0
Travelion – Mobile

অস্ট্রেলিয়ায় প্রথমবারের মতো করোনার নতুন ধরন ‘ওমিক্রন’ শনাক্ত হয়েছে। সংক্রমিত ব্যক্তিরা প্রত্যেকেই সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ফিরেছেন।

এদেশটির নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যের বড় শহর সিডনিতে দুজনের আরেক রাজ্য নর্দার্ন টেরিটরিতে তৃতীয় ব্যক্তির মধ্যে শরীরে নতুন এ ধরনের উপস্থিতি মিলেছে।

দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ওই যাত্রায় একই সঙ্গে ফেরা আরও তিনজন যাত্রীর করোনা শনাক্ত হয়েছে। তবে তাঁদের মধ্যে অমিক্রন ধরন রয়েছে কি না, তা এখনো পরীক্ষাধীন।

এদিকে দেশটির ভিক্টোরিয়া রাজ্য ইতিমধ্যেই যাঁরা নিশ্চিত ও সন্দেহভাজন করোনার ওমিক্রন ধরনের কাছাকাছি এসেছেন, তাঁদের আইসোলেশনে রাখা হচ্ছে।

amar lab – mobile

দীর্ঘ ১৮ মাস পর দেশটির আন্তর্জাতিক সীমান্ত খোলার কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই দেশটিতে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। সিডনিসহ নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যে করোনার পূর্বের ধরনে নতুন প্রায় ১৫০ জন সংক্রমিত হয়েছেন।

আরও পড়েত পারেন :
পর্তুগালে ১৩ ফুটবল খেলোয়াড়-স্টাফ ওমিক্রন আক্রান্ত
ওমিক্রন রোধে বিশ্বব্যাপী ফ্লাইট বন্ধের পরিকল্পনা
‘ওমিক্রন’ উদ্বেগে বিশ্বজুড়ে সর্বোচ্চ সতর্কতা

এর সঙ্গে অস্ট্রেলিয়ায় আবারও বিদেশফেরত যাত্রীদের বাধ্যতামূলক ১৪ দিনের হোটেল কোয়ারেন্টিনে ফিরবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

১ ডিসেম্বর থেকে শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন অস্থায়ী ভিসাধারীদের জন্য অস্ট্রেলিয়ার সীমান্ত খুলে দেওয়ার কথা ছিল কিন্তু করোনার ঊর্ধ্বগামী সংক্রমণের হারের কারণে দেশটির আন্তর্জাতিক সীমান্ত আবার বন্ধ করে দেওয়া হবে কি না, বিষয়টি নিয়ে দিনব্যাপী আলোচনায় বসেছিল দেশটির ফেডারেল সরকার। আপাতত ১৫ ডিসেম্বর পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত স্থগিত করেছে সরকার।

ফলে শিক্ষার্থী, ওয়ার্কিং হলিডে ও অন্যান্য অস্থায়ী ভিসাধারী এখন আর অস্ট্রেলিয়ায় প্রবেশ করতে পারবেন না।

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন